শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

ঝালকাঠির আদালতে শিক্ষককে ৬ ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকার শাস্তি

ঝালকাঠি সংবাদদাতা, ১৬  নবেম্বর : ঝালকাঠির আদালতে সোমবার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন সহকারী শিক্ষককে ৬ ঘন্টা দাড়িয়ে থাকার শাস্তি প্রদান করা হয়। 

শাস্তিপ্রাপ্ত ওই শিক্ষকের নাম গাজী আবুল হাসানাত। তিনি রাজাপুর উপজেলার ৯৬ নং মধ্য ফুলুহার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। 

ঝালকাঠির সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সেলিম রেজা এ আদেশ প্রদান করেন। আদালত সূত্রে প্রকাশ রাজাপুর উপজেলার ২ নং দক্ষিণ সাতুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. রিয়াজ হোসেনকে গত ১৮ অক্টোবর রাজাপুর সদরের উপজেলা শিক্ষা অফিস চত্বরে  মারধর করে মধ্য ফুলুহার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক গাজী আবুল হাসানাত। 

এ বিষয়ে রিয়াজ হোসেন রাজাপুর থানায় ১৯ অক্টোবর একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। 

জিডির খবর জানতে পেরে ২১ অক্টোবর রাজাপুর থানায় মিথ্যা অভিযোগে একটি পাল্টা জিডি করেন গাজী আবুল হাসানাত। 

ঝালকাঠির সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সেলিম রেজা গত ২৯ অক্টোবর রিয়াজ হোসেনের জিডির প্রেক্ষিতে রাজাপুর থানাকে প্রসিকিউশন দাখিলের নির্দেশ দেন। সোমবার ছিল গাজী আবুল হাসানাতের জিডির ধার্য্য তারিখ।  আদালতের বিচারক সেলিম রেজা জিডির বিষয়ে আবুল হাসানাতকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি একেক সময় এক এক কথা বলে আদালতকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করেন। 

এক পর্যায় আদালত হাসানাতের আবেদন খারিজ করে দেন এবং বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত তাকে আদালতের কাঠগড়ায় দাড়িয়ে থাকার আদেশ দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ