বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

খেলাফত শাসন ব্যবস্থা বিশ্ববাসীর জন্য শান্তির মডেল -মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ 

গতকাল শনিবার দুপুরে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মজলিসে আমেলার (কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি) এক জরুরি বৈঠক ঢাকার কামরাঙ্গীরচর জামিয়া নূরিয়া মাদরাসায় অনুষ্ঠিত হয়

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের  মজলিসে আমেলার (কেন্দ্রীয় কর্যনির্বাহী কমিটি) এক জরুরী বৈঠক গতকাল শনিবার দুপরে ঢাকার কামরাঙ্গীরচর জামিয়া নুরিয়া মাদরাসায় অনুষ্ঠিত হয়। সভায় দলের কেন্দ্রীয় কর্যনির্বাহী কমিটির মেয়াদ পূর্ণ হওয়ায় আগামী ২৪ নবেম্বর সকাল ৯টায় খেলাফত আন্দোলনের  কেন্দ্রীয় কাউন্সিল করার সিন্ধান্ত গৃহীত হয়। বৈঠকে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের নেতা কর্মীদের জোড়ালভাবে অংশ  গ্রহণের জন্য আহ্বান জানানো হয়। 

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, দলের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী, নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী,মাওলানা আব্দুল মান্নান, মুফতি সুলতান মহিউদ্দিন, মাওলানা সানাউল্লাহ, আলহাজ আব্দুল মালেক চৌধুরী, মাওলানা ফিরোজ আশরাফী, ডা: নেয়ামত আলী ফকীর, মাওলানা সাজেদুর রহমান ফয়েজী, মাওলানা আশরাফুজ্জামান পাহাড়পুরী, মাওলানা ইলয়াছ মাদারীপুরী, মাওলানা সাইফুল ইসলাম সুনামগঞ্জী, হাজী আনসার উদ্দিন হাওলাদার, মাওলানা মাহবুবুর রহমান ও মুফতি মামুনুর রশিদসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

বৈঠকে সভাপতির ভাষণে দলের প্রধান, আমীরে শরীয়ত মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী হুজুর বলেন, খেলাফত শাসন ব্যবস্থার মাধ্যমে হযরত মুহাম্মাদ (সা:) যে ইনসাফ ও ন্যায় বিচার বিশ্ববাসীকে উপহার দিয়ে গেছেন তা বিশ্ববাসীর জন্য শান্তির মডেল হয়ে আছে। খেলাফত প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে অরাজকতা ও অশান্তি দুর করে শান্তি প্রতিষ্ঠা সম্ভব। তিনি আরো বলেন, আল্লাহর জমিনে আল্লাহর আইন-ই চলবে। সংসদে আল্লাহর আইন পাশ করে কুরআন-সুন্নাহর শাসন কার্যকর করতে হবে।  সে লক্ষে তাওহিদী জনতাকে নতুন করে জাগ্রত করতে হবে । তিনি আগামী জাতীয় নির্বাচনে দল-মত, জাতি,ধর্ম-বর্ণ নির্বিষেশে সকলকে এক ও নেক হয়ে  খেলাফত প্রতিষ্ঠার লক্ষে কাজ করে যাওয়ার আহবান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ