শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

শাহেদ আলী ছিলেন মানুষ ও মৃত্তিকাসংলগ্ন অসামান্য কথাশিল্পী ----কবি মোশাররফ খান

 

গত বুধবার সাহিত্য সংস্কৃতি কেন্দ্রের উদ্যোগে ভাষা সৈনিক ও কথাশিল্পী অধ্যাপক শাহেদ আলী’র ১৭তম মৃত্যুবার্ষিকী স্মরণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সাহিত্য সংস্কৃতি কেন্দ্রের সহকারি সেক্রেটারি নাট্যকার মাহবুব মুকুলের পরিচালনায় সভাপতির বক্তব্যে বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি ও কথাশিল্পী মোশাররফ হোসেন খান বলেন, ভাষা সৈনিক অধ্যাপক শাহেদ আলী ছিলেন বিশ্বমানের একজন বরেণ্য কথাশিল্পী। 

তাঁর কথাসাহিত্য ছিল মানুষ ও মৃত্তিকাসংলগ্ন। যা বিশ্ব সাহিত্যের অন্তর্ভুক্ত হতে পারে। বাংলা কথাসাহিত্যে তাঁর অবদান সীমাহীন। 

দু:খের বিষয়, জাতিকে তিনি বহুকিছু দিয়ে গেলেও এই জাতি তাঁকে সেইভাবে মূল্যায়ন করতে ব্যর্থ হয়েছে। এমন একজন বিশ্বমানের কথাশিল্পীর যথাযথ সম্মান ও মর্যাদা দেয়া এই জাতির নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। তা না হলে আমরা বিবেকের কাছেই দায়বদ্ধ থেকে যাবো। যেটা কখনই কাম্য হতে পারে না। 

সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সাহিত্য সংস্কৃতি কেন্দ্রের সেক্রেটারি বিশিষ্ট শিল্পী কবি যাকিউল হক জাকী, কেন্দ্রের সহকারি সেক্রেটারি সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শাহাদাত টুটুল। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক আবুল খায়ের, শিল্পী কে এম সেলিম, নাট্যকার ফারুক খান, মোর্কারম বিল্লাহ,্ ক্বারী বেলাল হোসেন, কবি যাকারিয়া সৌরভ, নাট্যকার কায়েস মোবারক, সাইফুল ইসলাম মিঠু, তোফাজ্জল হোসেন সরকার, বিল্লাল হোসেন, মোর্শারফ হোসেন, হাসান ঢালি, জহির বিন বাশার, জয়নাল আবেদিন, তোফাজ্জল হোসেন, শিল্পী আবু রায়হান প্রমুখ। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ