শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়নি গাজীপুর কর অঞ্চলে

গাজীপুর সংবাদদাতাঃ গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারেনি গাজীপুর কর অঞ্চল। লক্ষমাত্রার চেয়ে প্রায় ৭৫ কোটি টাকা কম রাজস্ব আদায় হয়েছে এসময়ে। কর অঞ্চল গাজীপুরের (গাজীপুর ও টাঙ্গাইল জেলা) কর কমিশনার মোঃ আলী আজগর সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ তথ্য জানিয়েছেন।
আগামী ১৩ নবেম্বর থেকে ১৬ নম্বের পর্যন্ত অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় আয়কর মেলা উপলক্ষে গাজীপুর কর অঞ্চলের সেমিনার কক্ষে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আয়োজিত এ মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত কর কমিশনার শাহাদাত হোসেন সিকদার, যুগ্ম করকমিশনার আব্দুস সালাম, উপ-করকমিশনার সদর দপ্তর (প্রশাসন) আশরাফুল আলম প্রধান, গাজীপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোঃ খায়রুল ইসলাম ও সাধারন সম্পাদক রাহিম সরকার প্রমুখ।
কর কমিশনার মোঃ আলী আজগর বলেন, গাজীপুরে অবস্থিত শতকরা ৯৫টি কলকারখানার কর গাজীপুর কর অফিসে প্রদান করে না। এসব কারখানার প্রধান কার্যালয় ঢাকায় অবস্থিত থাকার কারনে তারা ঢাকা কর অফিসে কর প্রদান করে থাকেন। তাই ২০১৬-১৭ অর্থবছরের চেয়ে বেশী আদায় হলেও ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়নি। এসব কারখানাগুলোকে গাজীপুর কর অঞ্চলের আওতাভূক্ত করতে পারলে এ কর অঞ্চলের কর আদায়ের পরিমাণ আরো বৃদ্ধি পাবে।
গাজীপুর কর অঞ্চলের অতিরিক্ত কর কমিশনার মো শাহাদাত হোসেন সিকদার জানান, গাজীপুর কর অঞ্চলে গত অর্থ বছরে (২০১৭-১৮) ১ লাখ ৫০ হাজার লোক ট্যাক্স ফাইল নিবন্ধন করেছেন। এদের মধ্যে রিটার্ন জমা দেন প্রায় ৫২ হাজার লোক এবং নিয়মিত কর প্রদান করে থাকেন ৩০ হাজার লোক।
তিনি জানান, গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে গাজীপুর কর অঞ্চলে রাজস্ব আহরনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৬২৫ কোটি টাকা। এর বিপরীতে কর আহরণ হয়েছে ৫৫০ কোটি টাকা। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৭৫ কোটি টাকা কম রাজস্ব আহরণ করা হয়েছে। রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হবার কারণ সম্পর্কে তিনি জানান, পানি, কোল্ড ড্রিংস, সাবানসহ বিভিন্ন সামগ্রীর মোড়ক থেকে ব্যান্ডরোল প্রথা উঠিয়ে দেয়া হয়েছে। তাছাড়া বিভিন্ন কারখানার প্রধান অফিস ঢাকায় অবস্থিত হবার কারনে তারা ঢাকায় কর প্রদান করে থাকেন। এসব কারনে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হয়নি। তবে আগামীতে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবার জন্য তারা কাজ করে যাচ্ছেন।
তিনি আরো জানান, চলতি অর্থবছরে গাজীপুর কর অঞ্চলে ৮২৯ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। অর্থবছরের এ সময় পর্যন্ত ১০০ কোটি টাকার উপর রাজস্ব আদায় হয়েছে বলে জানান এ কর্মকর্তা।
কর কমিশনার মোঃ আলী আজগর জানান, আগামী ১৩ নবেম্বর থেকে চারদিন ব্যাপী কর মেলা অনুষ্ঠিত হবে। এ মেলা উপলক্ষে গ্রাহকরা যাতে সহজে ও নির্বিঘেœ কর দিতে পারেন, এ জন্য মেলা প্রাঙ্গনে হেল্প ডেক্স খোলা হবে। এছাড়া মেলায় যাতে অনেক লোকের সমাগম হয়, এজন্য পোস্টার, লিফলেট, ব্যানার, মাইকিং ও মোবাইলে এসএমএস এর মাধ্যমে প্রচারনা চালানো হচ্ছে। তিনি জানান, মেলায় তিনটি ক্যাটাগরিতে (সিটি কর্পোরেশন, সিটি কর্পোরেশন ব্যতিত জেলা ও টাঙ্গাইল জেলা) মোট ২১ জন করদাতাকে সম্মাননা জানানো হবে। এরমধ্যে প্রতি ক্যাটাগরি থেকে দীর্ঘ সময় কর দাতা ২ জন, সর্বোচ্চ করদাতা ৩জন, তরুণ করদাতা ১ জন এবং সেরা মহিলা করদাতা ১ জনকে সম্মাননা প্রদান করা হবে। এছাড়াও ১৮ ও ১৯ নবেম্বর উপজেলা পর্যায়ে কর মেলার আয়োজন করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ