শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

পত্নীতলায় খাসপুকুরে মাছ ছাড়াকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ ॥ আহত-১৪

পত্নীতলা (নওগাঁ): পত্নীতলায় সরকারি খাসপুকুরে মাছ ছাড়াকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে এক সংঘর্ষে উভয় পক্ষের নারী-পুরুষসহ ১৪ জন আহত হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরজমিনে পরির্দশন করে জানা গেছে পত্নীতলা উপজেলার পত্নীতলা ইউনিয়নের নন্দনপুর মৌজায় অবস্থিত ৭৭ শতক একটি খাসপুকুর নিয়ে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে দীর্ঘদিন যাবৎ চরম উত্তেজনা চলছিল। ঘটনার দিন গতকাল সকাল ৮.৩০মিনিটে নন্দনপুর এতিমখানা মাদরাসার পক্ষে নন্দনপুর গ্রামবাসী ঐখাস পুকুরে মাছ ছাড়ার জন্য আসলে চক আবদাল গ্রামের বাসিন্দারা মাছ ছাড়তে বাধা দেয়, এতে উভয় পক্ষের কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে দুই গ্রাম বাসীর মধ্যে পুকুরপাড়ে এক সংঘর্ষ বাধে এতে ঘটনাস্থলে উভয়পক্ষের ১৪ জন আহত হয়। আহতদের পত্নীতলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলো- আলীমুদ্দিন (৪৭), ইয়াকুব (৪৮), আনোয়ার (৫৫), কুদ্দুস (৪৫), মনছুর আলী (৫৫), সায়েদ আলী (৫৬), নয়ন হোসেন (২৮), মোতালেব (৪৫), বিপরীদ পক্ষে আহত হয়েছে আজিবুল (২৪), সাকিল (২৬), মিলন (২৫), জাইদুল (৩৫), অভিযান বিবি (৫০), লিপি (৩৫), আহতদের মধ্যে আলীমুদ্দিন ও আলিমের অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এব্যাপারে নন্দনপুর এতিমখানা কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানায় সরকারি নিয়ম অনুযায়ী আমরা খাসপুকুরটি চাষাবাদ করে আসতেছি। এব্যাপারে চক আবদাল মৎস চাষী সমবায় সমিতির সকল সদস্য অভিযোগে জানায় খাসপুকুরটি আমরা চক আবদাল গ্রামবাসী ১৯৭১ সাল থেকে সরকারি নিয়ম অনুযায়ী মসজিদের পক্ষে আমরা চাষাবাদ করে আসছি। এ ব্যাপারে পত্নীতলা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শরিফুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান উক্ত গ্রামে মারামারি হয়েছে বলে আমি শুনেছি তবে এখন পর্যন্ত আমার কাছে কোন পক্ষ অভিযোগ করতে আসেনি। এ ব্যাপারে পত্নীতলা থানার ওসি শ্রী পরিমল কুমার চক্রবর্তীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এখন থানায় কোন অভিযোগ হয়নি। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উক্ত গ্রামে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ