বৃহস্পতিবার ১৬ জুলাই ২০২০
Online Edition

অন্ত:সত্তা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

কুমিল্লা অফিস : যৌতুকের দাবীতে ঢাকায় বসবাসরত কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের আলকরা ইউনিয়নের রোকেয়া আক্তার (২২) নামের অন্ত:সত্তা এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) দিবাগত রাতে ঢাকার তুরাগ থানাধীন ডুলিপাড়া বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রোকেয়া আলকরা ইউনিয়নের শিলরী গ্রামের আইয়ুব আলীর মেয়ে এবং এক পুত্র সন্তানের জননী।
রবিবার (২৮ অক্টোবর) উপজেলার  আলকরার শিলরী গ্রামে জানাযার নামাজ শেষে রোকেয়ার লাশ দাফন করা হয়।
নিহতের ভাই এয়াকুব হোসেন জানান, চার বছর পূর্বে চৌদ্দগ্রামের চিওড়া ইউনিয়নের সারপটি গ্রামের মনু মিয়ার ছেলে কামরুলের সাথে পারিবারিকভাবেই রোকেয়ার বিবাহ সম্পন্ন হয়। এসময় কামরুলের দাবীকৃত এক লক্ষ টাকা যৌতুকও পরিশোধ করা হয়।
বিয়ের কিছুদিন পর কামরুলের ব্যবসার সুবাদে রোকেয়াকে নিয়ে ঢাকার তুরাগ থানাধীন এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করে। বিয়ের এক বছরের মাথায় কামরুল আবারো রোকেয়াকে যৌতুকের জন্য চাপ প্রয়োগ করে। রোকেয়া পরিবারের অক্ষমতার কথা জানালে তাকে বিভিন্ন সময় শারীরিকভাবে নির্যাতন করে কামরুল।
ঘটনার দিন কামরুল রোকেয়াকে পিটিয়ে এবং পেটে লাথি মেরে হত্যা করে বলে অভিযোগ করে রোকেয়ার পরিবার।
পরদিন শনিবার সকালে তুরাগ থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করে।
ময়নাতদন্ত শেষে লাশটি পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়।
তুরাগ থানার ওসি নুরুল মুত্তাকিন জানান, নিহতের ঘটনায় মামলার বিষয়ে পরিবার থেকে এখনো কেউ যোগাযোগ করেনি। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে জানা যাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ