শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

বৃদ্ধ রাজ্জাক মিয়ার সম্পত্তি দখল ও প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

মাধবদীতে বৃদ্ধ রাজ্জাক মিয়ার সম্পত্তি দখল ও পরিবারের প্রাণ নাশের হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা: বিজ্ঞ আদালতের আদেশ অমান্য করে ৯৪ বছরের বৃদ্ধ আঃ রাজ্জাক মিয়ার সম্পত্তি দখল ও পরিবার পরিজনদের প্রাণ নাশের হুমকির প্রতিবাদে গত ২৭ অক্টোবর আঃ রাজ্জাক তার প্রতিবন্ধী পুত্র অন্ধ হাফেজ আঃ সাত্তার ও কাউছারকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন মাধবদী প্রেসক্লাবের হলরুমে।
সংবাদ সম্মেলনে আঃ রাজ্জাক তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, ধনুরুদ্দিনের পুত্র আঃ রাজ্জাক টুকু মিয়া, বোন ফুলেনেছা, স্ত্রী আনেছা বিবিকে নিয়ে ঘর সংসার করা অবস্থায় ফুলেনেছার বিয়ের ছয় মাস পর নিঃসন্তান অবস্থায়  সে মৃত্যুবরণ করে। পরবর্তীতে ধনুরুদ্দিন তার মৃত্যুকালে আঃ রাজ্জাক, টুকু মিয়া ও স্ত্রী আনেছাকে রেখে মৃত্যুবরণ করে। অপরদিকে ধনুরুদ্দিনের ছেলে টুকু মিয়া অবিবাহিত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে। কিছুদিন পর ধুনুরুদ্দিনের স্ত্রী আনেছাও মৃত্যুবরণ করে। ফলে ধনুরুদ্দিনের রেকডিয় ১০৭ শতাংশ জমির মালিক হন আঃ রাজ্জাক মিয়া। উক্ত সম্পত্তির মালিক হয়ে নিষ্কন্টক অবস্থায় আঃ রাজ্জাক ভোগ দখল করে আসছে। এ দিকে রাজ্জাকের সম্পত্তির উপর ঈর্ষান্বিত হয়ে এলাকার একটি কুচক্রি মহলের পরামর্শে মোঃ তারা মিয়া ও আঃ মান্নান পিতা রহিম সাং খোর্দ্দনওপাড়া বিয়ের ছয় মাস পর নিঃসন্তান অবস্থায় মৃত ফুলেনেছার পুত্র দাবী করে এলাকার কিছু উচ্ছৃঙ্খল লোকজন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দল নিয়ে রাজ্জাককে ও তার পরিবারের প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে ৮.৬৭ শতাংশ জমি দখল করে নেয়। এব্যাপারে আঃ রাজ্জাক বাদী হয়ে নরসিংদী বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে একটি স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারী করে। মামলা নং ১০২/১৫। বিজ্ঞ আদালত রাজ্জাকের সম্পত্তির উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করেন। নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্তেও তারা মিয়া ও মান্নান গং তাদের সন্ত্রাসী দল দিয়ে উক্ত সম্পত্তিতে বাউন্ডারী ঘর নির্মাণ করে। আঃ রাজ্জাক বলেন এসব ঘটনার মুল নায়ক দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট পৌরসভার আব্দুল রহিমের পুত্র প্রতারক আরিফুল ইসলাম বাবু। সে মাধবদী পৌরশহরের বিরামপুর মহল্লায় বিয়ে করে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে এলাকার মাস্তান ও সন্ত্রাসী দল নিয়ে এ ঘটনা ঘটায়। আঃ রাজ্জাক আরো বলেন মোঃ আরিফুল ইসলাম বাবু একজন প্রতারক সে বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে বিভিন্ন নাম ধারন করে প্রতারণা করে সটকে পড়ে। বর্তমানে আরিফুল ইসলাম বাবুর ভয়ে আঃ রাজ্জাক তার প্রতিবন্ধী অন্ধ পুত্র হাফেজ সাত্তার, আনোয়ার ও কাউছারকে নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন ও মানবেতর জীবন যাপন করছে। এ ব্যাপারে তিনি উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ