বৃহস্পতিবার ০২ জুলাই ২০২০
Online Edition

রাজশাহীতে জামায়াত ও শিবিরের পাঁচজনের ১০ বছরের জেল

রাজশাহী অফিস : রাজশাহীর একটি আদালতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশের দায়েরকৃত একটি বিস্ফোরক মামলায় জামায়াত ও শিবিরের পাঁচ নেতা-কর্মীকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ২টায় রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।
১৯০৮ সালের বিস্ফোরক দ্রব্য উপাদানাবলী আইনের সংশোধনী ২০০২ এর ৩ ধারায় আসামীদের দোষী সাব্যস্ত করে এ রায় দেয়া হয়। আসামী পক্ষ ও রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীদের উপস্থিতিতে এ রায় পড়ে শোনান বিচারক। মামলার রায় ঘোষণার সময় অভিযুক্ত ৫ জনের মধ্যে ৪ জন আসামীকে আদালতে হাজির করা হয়। বাকী একজন আসামী পলাতক রয়েছেন। ৫ জনকে দশ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা অনাদায়ে ১ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। কারাদণ্ড প্রাপ্তরা হলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার চাঁদলাই গ্রামের ইব্রাহিম বিশ্বাসের ছেলে কামাল উদ্দিন (৫০) ও বেলাল (৫২), রেহাইচর গ্রামের মৃত আবদুল মান্নানের ছেলে আব্দুল খালেক (৪০), নয়ানশুকা ফারাজীপাড়া গ্রামের তাইফুর রহমানের ছেলে সোহেল (২৩) এবং হেলালপুর টিকটিকিপাড়ার মোয়াজ্জেমের ছেলে আনোয়ার (২৫)। দণ্ডিতদের মধ্যে সোহেল পলাতক রয়েছেন। মামলার রায়ে উল্লেখ করা হয়, ২০১৩ সালের সারা দেশে বিরোধী দলের ডাকা ৯২ দিনের টানা অবরোধ চলাকালে প্রায় শতাধিক লোক নবাবগঞ্জ সদর থানার পিটিআই মহাসড়ক অবরোধ করে ককটেল এবং হাতবোমা নিক্ষেপ করে যানচলাচলে বাধা সৃষ্টি করে। সে সময় পুলিশ এসে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরবর্তীতে অভিযান চালিয়ে আসামীদের আটক করে এবং বিস্ফোরক আইনে মামলা দায়ের করে। যার প্রেক্ষিতে আদালত এ রায় প্রদান করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ