বৃহস্পতিবার ০৪ জুন ২০২০
Online Edition

জামায়াত সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে সাতক্ষীরায় ৫ নারীসহ ৫৭ জন আটক

কলারোয়া : জামায়াতের ৬ মহিলা কর্মীকে পুলিশ কথিত নাশকতার অভিযোগে আটক করে।

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা: জামায়াত সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে কলারোয়ার বিভিন্ন এলাকা থেকে পাঁচ নারীকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, উপজেলার তুলশিডাঙ্গা গ্রামের হামিদুর রহমানের স্ত্রী আম্বিয়া বেগম, একই এলাকার অধ্যাপক ময়নুল ইসলামের স্ত্রী তাজকিয়া হক(৭২), সোনবাড়িয়া ইউনিয়নের রামকৃষ্ণপুর গ্রামের মমতাজ আলীর স্ত্রী মাহফুজা খাতুন, চন্দনপুর ইউনিয়নের রামভদ্রপুর গ্রামের শাহিদা বেগম ও সোনাবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল আজিজের স্ত্রী ফিরোজা বেগম। বুধবার দিনের বেলায় শাহিদা বেগম ও ফিরোজা খাতুনকে ও রাতে অন্যদের আটক করা হয়।
আটককৃতদের বিরুদ্ধে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি  নাশকতার মামলায় দায়ের করে বৃহষ্পতিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
সাতক্ষীরা আদালত সূত্রে জানা গেছে আটককৃত মহিলাদের বিরুদ্ধে পুলিশের দায়েরকৃত মামলা নং জিআর ৩৩৬/১৮ । 
কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত ওসি মারুফ বিল্লাহ জানান, নাশকতার চেষ্টা কালে জামায়াতের ৫ মহিলাকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে। 
আটককৃত পরিবারের কয়েকজন সদস্য জানান,সম্পূর্ণ অন্যায় ভাবে তাদেরকে আটক করেছে পুলিশ। আগামি নির্বাচনে নারীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে এসব নারীদের গ্রেফতার ও গায়েবী মামলা। আটক হওয়া মহিলাদের মধ্যে মাহফুজা খাতুন কলারোয়া এলাকায় নারীদের মাঝে বিনামুল্যে কুরআন শেখাতেন। তার স্বামী মমতাজ আলীর অভীযোগ সাধারণ মানুষের মাঝে ধর্মীয় শিক্ষা হিসাবে তার স্ত্রী বিনামুলে কুরআন শেখাতেন। শত শত মহিলা তার কাছ থেকে কোরআন শিখেছেন। এটাই তার অপরাধ।
 এছাড়া জেলা অভিযানে আরো ৫৭ জনকে আটক করা হয়েছে।বুধবার সন্ধ্যা থেকে বৃহষ্পতিবার সকাল পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।   আটকদের বিরুদ্ধে ৮টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক আজম খান জানান,সাতক্ষীরা সদর থানা থেকে ১০ জন,কলারোয়া থানা থেকে ১৩ জন,তালা থানা থেকে ৪ জন,কালিগঞ্জ থানা থেকে ৫ জন,শ্যামনগর থানা থেকে ৭ জন,আশাশুনি থানা থেকে ১০ জন,দেবহাটা থানা থেকে ৪ জন ও পাটকেলঘাটা থানা থেকে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।
তিনি আরও জানান,আটকদের বিরুদ্ধে নাশকতা ও মাদকসহ বিভিন্ন অভিযোগে মামলা রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ