শনিবার ০৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

২৮ অক্টোবরের পৈশাচিক হত্যাকাণ্ডের বিচার বাংলাদেশের মাটিতে একদিন হবেই -এডভোকেট জুবায়ের

সিলেট ব্যুরো : জামায়াতের কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদের সদস্য ও সিলেট মহানগর জামায়াতের আমীর এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের বলেছেন, ২০০৬ সালের ২৮শে অক্টোবর বাংলাদেশের রাজনীতির ইতিহাসে এক কলঙ্কজনক অধ্যায়ের সূচনা করে। সেই দিনে রাজধানীর পুরানা পল্টনসহ সারাদেশে জামায়াত-শিবিরের উপরে পরিকল্পিতভাবে তান্ডবলীলা চালায় আ.লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট। প্রকাশ্য দিবালোকে লগি-বৈঠা দিয়ে সাপের মতো পিটিয়ে মানুষকে হত্যা করে লাশের ওপর নৃত্য করে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা। তাদের নৃশংসতা থেকে রেহাই পায়নি পূন্যভুমি সিলেটও। ২৮ অক্টোবরের পৈশাচিক হত্যাকান্ডের বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এই বাংলাদেশেই বাস্তবায়ন হবে ইনশাআল্লাহ।  সেদিনের ভয়াল তান্ডবে ঢাকার রাজপথে ৬ জনসহ সারাদেশ ১৩ জন জামায়াত ও শিবিরের নেতা-কর্মী শাহাদাৎ বরণ করেন এবং আহত হন হাজার হাজার নেতা-কর্মী। সাপের মতো পিটিয়ে হত্যা ও মৃত লাশের ওপর নৃত্য ও উল্লাস করার মতো ঘটনা পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। এ ঘটনা শুধু বাংলাদেশেই নয়, বিশ্বের কোটি কোটি বিবেকবান মানুষকে হতবাক করে দিয়েছিল।
তিনি গতকাল রোববার সিলেট মহানগর জামায়াতের উদ্যোগে ভয়াল ২৮ অক্টোবর উপলক্ষে লগি-বৈঠার তান্ডবে শাহাদাৎবরণ কারী শহীদদের স্মরণে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। সভা শেষে শহীদদের মাগফেরাত কামনা এবং দেশ জাতির মঙ্গল কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। সিলেট মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারি মাওলানা সোহেল আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- মহানগর সহকারী সেক্রেটারি মো: আব্দুর রব, জামায়াত নেতা ক্বারী আলাউদ্দিন, মাওলানা আব্দুল লতিফ ও মাওলানা জাকারিয়া আহমদ প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ