শুক্রবার ১৭ জুলাই ২০২০
Online Edition

বিজেএমসিকে হারিয়ে সাইফ স্পোর্টিংয়ের শুভ সূচনা

স্পোর্টস রিপোর্টার : ফেডারেশন কাপ ফুটবলে বিজেএমসিকে হারিয়ে ‘বি’ গ্রুপে শুভ সূচনা করলো সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। গতকাল রোববার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্টিত গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সাইফ স্পোর্টিং ৩-১ গোলের সহজ পার্থক্যে হারিয়েছে বিজেএমসিকে। বিজয়ী দলের তিন গোলদাতা হলেন দক্ষিণ কোরিয়ার সিউনগিল পার্ক, রাশিয়ার দেনিস বলশাকভ এবং তরুণ স্ট্রাইকার জাফর ইকবাল। অপরদিকে বিজেএমসির পক্ষে একমাত্র গোলটি করেন আবদুল্লাহ আল মামুন। গত মৌসুমের মতো এবার তারকার মেলা নেই সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবে। প্রিমিয়ার লিগের অভিষেক আসরে বিগ বাজেটের দল গড়ে সাফল্য না পেয়ে এবার তারুণ্য আর বিদেশির দিকেই বেশি নজর ছিল দলটির। স্থানীয়দের মধ্যে বড় মুখ বলতে জাতীয় দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া, ফরোয়ার্ড জাফর ইকবাল ও ডিফেন্ডার রহমত মিয়া।স্কোর বলছে ম্যাচটি সহজেই জিতেছে সাইফ। কিন্তু স্কোর আর মাঠের দৃশ্য ছিল আলাদা। বিজেএমসি সমানতালেই খেলেছে। পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে ফিরেছিল বিজেএমসি। কিন্তু তাদের শেষ রক্ষা হয়নি। দুটি পেনাল্টি থেকে দুই গোল করে ম্যাচটা নিজেদের করে নিয়েছে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব।

পঞ্চম মিনেটে সাইফ এগিয়ে যায় দক্ষিণ কোরিয়ান ফরোয়ার্ড সিউগিল পার্কের করা পেনাল্টি গোলে। শুরুতে পিছিয়ে পড়া বিজেএমসি ম্যাচে ফিরতে বেশি সময় নেয়নি। ১২ মিনিটে উজবেকিস্তানের মিডফিল্ডার ওতাবেকের ফ্রিকিক থেকে হেডে গোল করে বিজেএমসিকে ম্যাচে ফেরান আবদুল্লাহ আল মামুন।ম্যাচে ফেরার পর বিজেএমসি আক্রমণও বেশি করতে থাকে সাইফের চেয়ে। ৬৬ মিনিটে সাইফকে এগিয়ে দেন জাফর ইকবাল। বাম দিক থেকে পার্কের ক্রসে বক্সে বল থামিয়ে ডিফেন্ডারদের বাধার মুখেও শরীর ঘুরিয়ে বল জালে পাঠান জাতীয় দলের এ ফরোয়ার্ড।ম্যাচে ফিরতে বিজেএমসি যখন মরিয়া তখন দ্বিতীয় পেনাল্টি পায় সাইফ। রুশ ফরোয়ার্ড ডেনিশ বলশাকভ ব্যবধান করেন ৩-১। পেনাল্টির সিদ্ধান্তের পর বিজেএমসির খেলোয়াড়রা রেফারিকে ঘিরে ধরে প্রতিবাদ করেন। কিন্তু সাইফ সুযোগ কাজে লাগিয়ে পূর্ণ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে।অপরদিকে ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় বিজেএমসির পয়েন্টের খাতা শূন্য।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ