শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২
Online Edition

বিএনপি নালিশ পার্টিতে ও খুনি দলে পরিণত হয়েছে -কাদের

সাভার সংবাদদাতা :বিএনপি বাংলাদেশে নালিশ পার্টিতে ও খুনি দলে পরিণত হয়েছে। এই দলের প্রতি দেশের মানুষের কোন আস্থা নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সাভার বাজার বাসষ্ট্যান্ডে সাভার পৌর আওয়ামী লীগের আয়োজনে সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ ও ঐক্য ফ্রন্টের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে এক নির্বাচনী গণসংযোগে যোগ দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসময় আরও বলেন, বিলবোর্ড ও ব্যানার ফেষ্টুন দেখে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন দেওয়া হবে না। নেতাদের যোগ্যতা দেখে মনোনয়ন দেওয়া হবে। বিএনপি দেশে অসুস্থ ধারার রাজনীতি করার জন্য অসুস্থ মানুষের সাথে ঐক্য ফ্রন্ট করেছে। এই ঐক্য ফ্রন্টের কোন ভিত্তি নেই। দেশের মানুষ আগামী নির্বাচনে আবারও নৌকা মার্কাকে   ভোট দিয়ে ক্ষমতায় আনবে জানিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে মাইনাস করতে বিএনপি কামাল হোসেনের সাথে ঐক্য করেছে। বিএনপি ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার সাথে জড়িত জানিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, আওয়ামী লীগে কোন বিভেদ নেই সবাই এক সাথে নির্বাচন উপলক্ষে কাজ করবে। আগামী নির্বাচন উপলক্ষে বিএনপি দেশে কোন অবৈধ আন্দোলন করলে কঠোর হাতে দমন করা হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

পরে মন্ত্রী আশুলিয়ার ডেন্ডাবর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনী গণসংযোগ পথসভায় অংশ নেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সংসদীয় আসনগুলোতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের হুঁশিয়ার করেন তিনি। ‘মনোনয়ন চাওয়া সবার গণতান্ত্রিক অধিকার। কিন্তু মনোনয়ন না পেয়ে কেউ বিদ্রোহ করে প্রার্থী হলে তার খবর আছে!’ বলেন তিনি।

‘ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও পৌরসভা নির্বাচনে যারা বিদ্রোহ করেছেন, তাদের ক্ষমা করা হয়েছে। কিন্তু এইবার বিদ্রোহ করলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাউকে রেহাই দেবেন না। কেননা, সব শয়তান, সন্ত্রাসী, খুনিরা এক হয়ে ঐক্যজোট করেছে। তাই সকলকে আওয়ামী লীগের হয়ে একজোট থাকতে হবে।’

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের উদ্দেশ্যে কাদের বলেন, ‘আজ সাভার পৌরসভা ও উপজেলায় তিনি যে দুটি পথসভা করেছেন, এর একটার সমান পথসভাও যদি ঐক্যজোট সিলেটে করতে পারতো, তাহলে সারা বাংলাদেশ ফাটাইয়া ফেলতো। সিলেটের জনসভায় শুধু নেতা আর নেতা। জনতা কম, নেতা বেশি। মঞ্চ ভরে শুধু নেতা-নেতার ঐক্য। সেখানে জনতার কিছু আসে যায় না।’

ঢাকা-১৯ (সাভার) আসনের মনোনয়ন প্রতিযোগিতাকে সুস্থ প্রতিযোগিতা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘সাভারের নেতাকর্মীদের উপর আমার আস্থা আছে। যারা পেট্রোল, অস্ত্র নিয়ে সহিংসতা করতে আসবে, তাদের দাঁতভাঙা জবাব দেবে এখানকার জনগণ।’

গণসংযোগে এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড.দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক কে এম এনামুল হক শামীম, ব্যারিষ্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নোওফেল, সাভারের সংসদ সদস্য ডা.এনামুর রহমান, ধামরাইয়ের সংসদ সদস্য এম এ মালেক, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজীর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার, সাভার পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র হাজ্বী আব্দুল গণি, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম মানিক মোল্লাসহ আরও অনেকে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ