মঙ্গলবার ০২ জুন ২০২০
Online Edition

চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে দুদকের অভিযান, নথিপত্র জব্দ

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা : চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে ডাল সরবরাহের টেন্ডার প্রক্রিয়ায় অনিয়মের অভিযোগে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ সময় জেলা কারাগারের বিভিন্ন টেন্ডারের ফাইলের অনুসন্ধান করে কিছু নথিপত্র জব্দ করা হয়েছে। বুধবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে দুদকের চার সদস্যর একটি অনুসন্ধানী দল এ অভিযান চালায়। জেলা কারাগারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সোমবার (৮ অক্টোবর) জেলা কারাগারের ডাল সরবরাহের টেন্ডার প্রক্রিয়ায়  অনিয়মের অভিযোগের ভিত্তিতে এ অনুসন্ধান চালিয়েছে দুদক। বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন জেলা কারাগারের জেলার এমরান হোসেন।

দুদকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দুদকের হট লাইন ১০৬ নম্বরে ফোন করে চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে ডাল ক্রয় সংক্রান্ত একটি  অভিযোগ জানানো হয়। পরে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করে বুধবার দুপুরে ওই কারাগারে অভিযান চালানো হয়। এ সময় দুদকের সদস্যরা ডাল ক্রয় সংক্রান্ত টেন্ডারের সব কাগজপত্র পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন এবং এর মধ্যে কিছু নথিপত্র জব্দ করেন। দুদকের কুষ্টিয়া অঞ্চলের সহকারী উপ-পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান জানান, চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারের বন্দিদের জন্য ডাল সরবরাহের টেন্ডারে অনিয়মের অভিযোগের ভিত্তিতে এ অনুসন্ধান চালানো হয়। অনুসন্ধানে অনিয়মের বিষয়ে বেশ কিছু তথ্য মেলায় কিছু নথিপত্র জব্দ করা হয়েছে। এগুলো আরও যাচাই-বাছাই শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জেলা কারাগার সূত্র জানায়, চলতি বছর জেলা কারাগারের বন্দিদের ডাল সরবহারের জন্য পত্রিকায় দরপত্র আহ্বান করা হয়। ওই টেন্ডারে চারজন ঠিকাদার অংশ নেন। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সর্বনি¤œ দরদাতা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান শিহাব ডাল মিলের সত্ত্বাধিকারী সাইফুল ইসলাম মিনুকে সরকারী নিয়মানুযায়ী ঠিকাদার নিযুক্ত করা হয়। সোমবার (৮ অক্টোবর) টেন্ডার সংক্রান্ত সব কার্য স¤পন্ন করা হয়। সরকারি সব বিধি মেনে ডাল ক্রয় সংক্রান্ত টেন্ডার স¤পন্ন করা হয়েছে বলেও দাবি জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক নজরুল ইসলামের।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ