শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

সেমিফাইনালে আজ মুখোমুখি বাংলাদেশ-ফিলিস্তিন

 

স্পোর্টস রিপোর্টার : বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবলের ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে আজ ফিলিস্তিনের মুখোমুখি হচ্ছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।কক্সবাজারের বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় সেমি-ফাইনাল ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর আড়াইটায়। শক্তি, সামর্থ্য আর র‌্যাংকিংয়ে অনেক এগিয়ে থাকলেও লড়াইয়ের প্রত্যয় বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার কণ্ঠে। এদিকে বাংলাদেশ দলের ইংলিশ কোচ জেমী ডে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ফিরেছেন। সোমবার বেলা আড়াইটায় বাংলাদেশ দলের অনুশীলন ছিল কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে। অনুশীলনে যাওয়ার পথে কোচ বুকে ব্যথা অনুভব করেন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে জরুরি ভিত্তিতে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ইসিজিসহ বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। হাসপাতালে একদিন থাকার পর পুরোপুরি সুস্থ অনুভব করলে আজ ছেড়ে দেয়া হয় বাংলাদেশ দলের কোচকে।গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগের দিন গতকাল মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক জামাল ভূইয়া বলেছেন, ‘কাল আমাদের খুবই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। ফিলিস্তিন আমাদের চেয়ে এগিয়ে থাকলেও এটা আমাদের মাঠ। আমরা নিজেদের সেরাটা দিয়ে লড়াইয়ের চেষ্টা করবো।’বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামের মাঠ ঠিক ফুটবল উপযোগী না হলেও ভালো খেলতে আশাবাদী বাংলাদেশ অধিনায়ক, ‘আমরা এমন মাঠে খেলতে অভ্যস্ত। বৃষ্টি হলে অবশ্য মাঠের চেহারা পাল্টে যেতে পারে। রোদ থাকলেই আমাদের জন্য ভালো। মনে হয় না ফিলিস্তিন গরমের মধ্যে খেলতে অভ্যস্ত।’

ফিফা র‌্যাংকিংয়ে ফিলিস্তিনের অবস্থান ১০০, আর বাংলাদেশের ১৯৩। প্রতিপক্ষ নিয়ে বাংলাদেশের অন্যতম সেরা মিডফিল্ডারের বিশ্লেষণ, ‘ফিলিস্তিন যেন সেট পিসে গোল করতে না পেরে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। নেপালের বিপক্ষে সেট পিসে ভালো করেছে ওরা। ওদের হেডিং ভালো, ওরা শারীরিকভাবেও এগিয়ে। ওদের আক্রমণ ঠেকাতে আমাদের সব ধরনের কৌশল ব্যবহার করতে হবে।’সেমিফাইনালে চাপমুক্ত হয়ে খেলার কথা জানিয়ে জামাল বলেছেন, ‘সেমিফাইনালে আমরা আন্ডারডগ, আর আন্ডারডগ হিসেবে খেললে এমনিতেই চাপ কমে যায়। ফিলিস্তিন ৭০/৮০ মিনিট গোল করতে না পারলে আমরা পাল্টা আক্রমণ থেকে গোল করার চেষ্টা করবো।’বাংলাদেশের গোল স্কোরিং সমস্যা নিয়ে অবশ্য যথারীতি দুশ্চিন্তায় অধিনায়ক, ‘ফিলিপাইনের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচে আমরা তিন/চারটা ভালো সুযোগ পেলেও গোল করতে পারিনি। এটা আমাদের অনেক পুরোনো সমস্যা। বাংলাদেশ ১০/১৫ বছর ধরে এই সমস্যায় ভুগছে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ