মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

যমুনা ও হুরাসাগরের তীর জুড়ে কাঁশ ফুলের শুভ্রতা

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) : এসো শারদ প্রাতের পথিক এসো শিউলী বিছানো পথে/এসো ধুইয়া চরণ শিশিরে এসো অরুণ কিরণ রথে- জাতীয় কবির এমন কথামালা শরতের সৌন্দর্য্যরেই মূর্তিমান বহিঃপ্রকাশ। আর সেই নান্দনিক প্রকাশ ঘটেছে সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুরে যমুনা নদীর তীরে কাঁশফুলের শ্বেত শুভ্র সমারোহে। ছবি : এম এ জাফর লিটন

এম,এ, জাফর লিটন, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) : শরৎকাল তাই আকাশ গাঢ় নীল, আর আকাশে ভেসে বেড়াচ্ছে সাদা মেঘের ভেলা। প্রকৃতির এই নান্দনিকতাকে আরও সমৃদ্ধ করেছে নদী তীরের কাঁশ ফুলের শুভ্রতা। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার যমুনা নদীর চর, হুরাসাগর নদীর তীর জুড়ে এখন কাঁশফুলের সমারোহ।  যে দিকে চোখ যায় সে দিকেই কাঁশফুল বাতাসে দোল খাচ্ছে। প্রকৃতি প্রেমিদের আনা গোনা বেড়ে গেছে কাঁশফুলের শুভ্রতায়। সরে জমিনে ঘুরে গত মঙ্গলবার বিকেলে যমুনা নদীর বুকে জেগে উঠা চরে কৈজুরী হাট পয়েন্টে পূর্ব দিকে তাকালেই দিগন্ত বিস্তৃত এলাকায় মৃদু বাতাসে দোল খাচ্ছে কাঁশ ফুল। যেন সাদা শাড়ী পড়ে বিধবা বধু হাতছানী দিয়ে যাচ্ছে। কাঁশ ফুলের সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে অনেক তরুণ-তরুণী এমনকি স্বপরিবারেই ছুটে আসছে যমুনা তীরে। কেউ যাচ্ছে পোরজনা ও বাচড়া পয়েন্টে হুরাসাগর নদীর তীরে ফুটে থাকা কাঁশ ফুলের সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে। বিকেল বেলা যমুনা গর্ভে জেগে উঠা চরে কাঁশ ফুলের সৌন্দর্য যেন দিগুন বেড়ে যায়। উপরে পরিচ্ছন্ন সাদা মেঘমুক্ত আকাশ আর তার নীচেই অপরূপ ভঙ্গিতে ফুটে আছে কাঁশ ফুল। পথিকের চোখ ও মন জুড়িয়ে দিচ্ছে নিমিষেই। যেন কাঁশ ফুল আকাশে ভেসে বেড়ানো সাদা মেঘের সাথে পাল্লা দিয়েই এগিয়ে চলছে। একসময় যমুনা বুকে বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে কাঁশ ফুল হতো। কিন্তু ফুল ফোটার আগেই এক শ্রেণীর অসাধু ব্যক্তিরা কাশি কেটে জ্বালানী হিসেবে এ গুলো বিক্রি করে দেয়। যমুনা তীরের  ঠুটিয়া স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রী আয়েশা জানান, আমরা প্রতিদিন নৌকাযোগে কাঁশ ফুলের পাশ দিয়ে কলেজে যাই আর এই ফুল দারুন উপভোগ করি। মাঝে মাঝে আমরা বন্ধুরা মিলে কাঁশ ফুলের মাঠে নেমে আনন্দ করি। ফুল তুলে নিয়ে পরস্পরকে উপহার দেই। সার্বিকভাবে আমরা দারুন উপভোগ করি যমুনা চরে ফোটা এই কাঁশফুলকে। নৌকাযোগে বাঘাবাড়ী করতোয়া নদী থেকে যমুনা নদীতে আসার পথে হুরাসাগর নদীর বাচড়া পয়েন্টেই কাঁশ ফুল হাতছানী দিতে থাকে। কিছুক্ষণ পর এর পূর্ণতা পায় যমুনা চরের বুকে দিগন্ত বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে ফুটে থাকা কাঁশ ফুলের সমারোহ দেখে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ