সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

পুয়ের্তো রিকোতে ঘূর্ণিঝড় ॥ মারিয়ায় প্রকৃত মৃতের সংখ্যা প্রায় তিন হাজার

২৯ আগস্ট, বিবিসি : ২০১৭ সালে ক্যারিবীয় দ্বীপ পুয়ের্তো রিকোতে ঘূর্ণিঝড় মারিয়ার আঘাতে প্রাণহানির নতুন সংখ্যা উপস্থাপন করেছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। তারা এখন বলছে, ঘূর্ণিঝড় মারিয়ার কারণে ২ হাজার ৯৭৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে; যা পূর্বে ঘোষিত প্রাণহানির সংখ্যার চেয়ে প্রায় ৫০ গুণ বেশি। গত বছর সরকারি ঘোষণায় মৃতের সংখ্যা ৬৪ বলে উল্লেখ করা হয়েছিল। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের এক প্রতিবেদন থেকে এসব কথা জানা গেছে। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে পুয়ের্তো রিকোতে হারিকেন মারিয়া আঘাত আনে। ৯০ বছরের মধ্যে ওই এলাকায় আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড় ছিল এটি। পুয়ের্তো রিকো কর্তৃপক্ষ  মৃতের সংখ্যা ৬৪ বলে জানায়। পরে মৃতের সংখ্যা বাড়লেও তা আর সংশোধন না করায় তুমুল সমালোচনার মুখে পড়ে তারা। এরপর নিহতের প্রকৃত সংখ্যা জানতে অনুসন্ধানে নামেন হার্ভাড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক। চলতি বছর জানুয়ারি থেকে মার্চে তিন হাজার বাড়িতে যোগাযোগ করে তারা। সেখান থেকে তথ্য নিয়ে ও নিজেরা অনুসন্ধান করে গবেষকরা জানান, প্রকৃত নিহতের সংখ্যা ৪ হাজার ৬০০ এরও বেশি। হার্ভাডের গবেষকরাদ দাবি করেন, ঝড়ের আঘাতের তিনমাস পর্যন্ত অসুস্থ ও আহত হয়ে ৬০ শতাংশ মানুষ প্রাণ হারিয়েছিলেন। পুয়ের্তো রিকোর সরকারি কর্মকর্তা কার্লোস মারসেডার সেসময় এই জরিপকে স্বাগত জানান। গত মঙ্গলবার প্রাণহানির নতুন সংখ্যা ঘোষণা করে পুয়ের্তো রিকো কর্তৃপক্ষ। এক সংবাদ সম্মেলনে গভর্নর রিকার্ডো রোসেলো বলেন, ‘মৃতের সংখ্যা হালনাগাদ করে ২,৯৭৫ করার জন্য আমি নির্দেশ দিচ্ছি। এটি হিসাব হলেও এর বৈজ্ঞানিক ভিত্তি আছে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ