মঙ্গলবার ০২ জুন ২০২০
Online Edition

চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস গ্রেপ্তার 

চুয়াডাঙ্গা সদর সংবাদদাতা: চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত সোমবার বেলা চারটায় শহরের কেদারগঞ্জ এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস চুয়াডাঙ্গা থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনের একটি মামলায় দীর্ঘদিন ধরে পলাতক অবস্থায় ছিলেন বলে পুলিশ দাবি করেছে। 

চুয়াডাঙ্গার সহকারি পুলিশ সুপার (সদর) আহসান হাবিব জানান, ২০১৭ সালের ৯ জুন রাত একটায় সদর উপজেলার সরিষাডাঙ্গা গ্রামের শাহ আলমের বাড়িতে নাশকতা ঘটানোর জন্য গোপন বৈঠক করছিলেন অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসসহ আরো অনেকে। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে রাত দেড়টার দিকে পুলিশ ওই বাড়িতে অভিযান চালায়। 

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসসহ আরো অনেকে পালিয়ে যান। পরদিন ১০ জুন চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে অজ্ঞাত দুই শতাধিক আসামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলার পর থেকে অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস পলাতক অবস্থায় ছিলেন। 

সহকারি পুলিশ সুপার আরো জানান, অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস চুয়াডাঙ্গায় ফিরেছেন খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ রবিবার বিকেল চারটায় তার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। 

বিকেল সাড়ে ৫টায় অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসকে বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে চুয়াডাঙ্গা আমলী আদালতে সোপর্দ করা হয়। পরে তাকে চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। 

অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসের গ্রেপ্তার হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে জেলা বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা চুয়াডাঙ্গা সদর থানা ও আদালত চত্বরে ভীড় করেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএনপির স্থানীয় এক নেতা বলেন, অতি সম্প্রতি কেন্দ্রীয় কর্মসূচি পালনের সময় পুলিশের সাথে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসের কথা কাটাকাটি হয়। 

ধারণা করা হচ্ছে সেই কারণেই তাকে মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি প্রকাশ্যে চুয়াডাঙ্গাতেই অবস্থান করছিলেন। পলাতক অবস্থায় ছিলেন না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ