সোমবার ২৫ মে ২০২০
Online Edition

মণিরামপুরে দু’টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আগুনে পুড়ে ছাই, মানুষের  কঙ্কাল উদ্ধার  

 

নিছার উদ্দীন খান আযম, মণিরামপুর (যশোর) ঃ মণিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ কলেজ মোড়ে দু’টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। এতে দু’টি দোকানের মালামাল ভষ্মিভূতসহ অজ্ঞাত এক ব্যক্তি আগুনে পুড়ে মারা যাওয়ায় কঙ্কাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

স্থানীয় লোকজন এবং পুলিশ সূত্রে জানাযায়, শনিবার গভীর রাতে উপজেলার রাজগঞ্জ কলেজ মোড়ে ভূষি ব্যবসায়ী মোতালেব ও মুদি ব্যবসায়ী জয়নালের দোকানে রহস্যজনকভাবে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মোতালেব গাজীর ঘরে থাকা ২’শ ৫০ মণ ধান এবং মুদি ব্যবসায়ী জয়নালের দোকান ঘরে থাকা ২টি ফ্রিজ, নগদ ৫০ হাজার টাকা, পেট্রোল ও ডিজেল ভর্তি ড্রামসহ অন্যান্য মালামাল পুড়ে ভূষ্মিভুত হয়। রাত ২টার দিকে স্থানীয় লোকজন  জানতে পেরে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রন করে। 

প্রতিবেশী রায়হান এবং ওই কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল লতিফ জানান, ঘটনার রাত ২টার দিকে আগুন দেখতে পেয়ে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়া হয়। এরই মধ্যে দুটি প্রতিষ্ঠানে থাকা সবই মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে দু’ব্যবসায়ীর দাবি অগ্নিকা-ে তাদের ৮ থেকে ৯ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। তবে, রহস্যজনক ভাবে পুড়ে যাওয়া ওই ঘর থেকে অজ্ঞাত এক লাশের কঙ্কাল উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। 

স্থানীয় জনগণের ধারনা পুড়ে যাওয়া ওই ব্যক্তি একজন চোর হতে পারে। সে চুরি করতে ঘরে ঢুকে বিদ্যুতের আলো জালানোর সময় কোনো দুর্ঘটনায় অগ্নিকা-ের সূত্রপাত হতে পারে। আর এতেই তার মৃত্যু হয়েছে। তবে লাশটির দাবি করেছেন উপজেলার হানুয়ার গ্রামের রুহুল আমিন বুদো নামের এক ব্যক্তি। তার দাবি পুড়ে যাওয়া কঙ্কালটি আমার ছেলে আজাদ হোসেনের লাশ। গত শনিবার ব্যবসায়ী জয়নালের সাথে গোলযোগ হওয়ায় সে আমার ছেলেকে আটকে রেখে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। তবে এসব কথা আমলে নেয়নি কেউ। 

স্থানীয় পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আকরাম হোসেন এবং মণিরামপুর থানার ওসি মোকাররম হোসেন জানিয়েছেন, ডিএনএ পরীক্ষা ছাড়া লাশটিকে কেউ দাবি করলে তা দেয়া সম্ভব হবে না। লাশ গ্রহণ করা হয়েছে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর পরবর্তী ব্যবস্থা হবে। উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা সালাউদ্দীন জানান, রাতে খবর পেয়ে ২টা ৪০ মিনিটে পৌছায় ঘটনাস্থলে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার পর পুড়ে যাওয়া একটি কঙ্কল দেখতে পাই। যা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে আমরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করি। তবে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ