সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

কুষ্টিয়ায় প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় প্রেমিক যুগলের আত্মহত্যা

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা : পরিবার থেকে প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের দুই শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুই ঘণ্টার ব্যবধানে তারা আত্মহত্যা করেন। নিহত দুই শিক্ষার্থী হলেন, রোকনুজ্জামান রোকন ও মুমতাহিনা। তারা দুজনই ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০১১-১২ স্নাতক শিক্ষা বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।
পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে, রোকনুজ্জামান একই বিশ্ববিদ্যালয়ের আল-হাদীস বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আশরাফুল আলমের মেয়ে মুনতাহিনার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। পরিবার থেকে প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায়  বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে মুমতাহিনা ঝিনাইদহ জেলার ঝিনুক টাওয়ারের ৫ম তলায় নিজ কক্ষে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। তাৎক্ষণিক দরজা ভেঙ্গে তাকে হাসপাতালে নেয়ার সময় পথেই তার মৃত্যু।
 হেনার মৃত্যুর খবর শুনে রাত ৮টার দিকে কুষ্টিয়ার মতি মিয়া রেলগেটে পোড়াদহ থেকে ছেড়ে যাওয়া গোয়ালন্দগামী চলন্ত ট্রেনে রোকনুজ্জামান ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন।
 পোড়াদহ জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আজিজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নিহত রোকনের বাসা চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদায়। সে স্নাতক পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হয়েছিল।
ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি শেখ এমদাদুল হক জানান, ‘মুমতাহিনার আত্মহত্যার বিষয়ে প্রাথমিক তদন্ত শেষ হয়েছে।’
 কুষ্টিয়া জেলার পোড়াদহের জিআরপি শাখা কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আজিজ বলেন, ‘পোড়াদাহ থেকে ছেড়ে যাওয়া গোয়ালন্দগামী শাটল ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ