বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

চরম দারিদ্র্যসীমার শীর্ষে নাইজেরিয়া 

 ১৭ জুলাই, ব্লুমবার্গ : আফ্রিকার দু’টি শীর্ষ অর্থনীতির অন্যতম নাইজেরিয়া চরম দারিদ্র্যের ক্ষেত্রে ভারতকে পেছনে ফেলে শীর্ষে উঠে এসেছে। একই সাথে আশঙ্কা করা হচ্ছে, আগামী এক যুগের মধ্যে বিশ্বের প্রতি ১০ জন দরিদ্রের মধ্যে ৯ জনই হবে এ মহাদেশের। ওয়ার্ল্ড পোভার্টি ক্লক বা দারিদ্র্য ঘড়ি ব্যবহার করে প্রকাশিত এক রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্রের ব্রুকিংস ইনস্টিটিউশন এ তথ্য জানিয়েছে। 

ওই রিপোর্টে বলা হয়, তেলসমৃদ্ধ নাইজেরিয়া গত মে মাসে ভারতকে পেছনে ফেলে। বর্তমানে দেশটিতে আট কোটি ৭০ লাখ লোক চরম দারিদ্র্যসীমার নিচে অবস্থান করছে, যা সংখ্যার দিক দিয়ে বিশ্বের মধ্যে শীর্ষ। অন্য দিকে ভারতে চরম দরিদ্র লোকের সংখ্যা সাত কোটি ৩০ লাখ। ভারতে প্রতি ৪৪ মিনিটে একজন চরম দারিদ্র্যের সীমা থেকে মুক্ত হচ্ছে। অন্য দিকে নাইজেরিয়ায় প্রতি ছয় মিনিটে একজন চরম দারিদ্র্র্যের অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে। 

এতে আরো বলা হয়, বিশ্বে যে ১৮টি দেশে দারিদ্র্য বাড়ছে, তার ১৪টিরই অবস্থান আফ্রিকায়। চরম দারিদ্র্যের তালিকায় তৃতীয় স্থানে থাকা ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোতে যে হারে দারিদ্র্যের সংখ্যা বাড়ছে, তাতে এ দেশটিও শিগগিরই ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। আফ্রিকার দারিদ্র্যের এই বৃদ্ধির কারণে সৃষ্ট অস্থিতিশীলতা, স্থানান্তর প্রবণতা ইত্যাদি বিষয় ইতোমধ্যেই ইউরোপের উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। 

২০১০ সাল থেকেই নাইজেরিয়ায় দারিদ্র্যের হার বাড়তে থাকে। সেখানে এটি একটি রাজনৈতিক ইস্যু হিসেবে গণ্য। কিছু দিন আগে বিশ্বব্যাংকও নাইজেরিয়ার দারিদ্র্যের হার বৃদ্ধির ব্যাপারে সতর্ক করেছিল। গত ফেব্রুয়ারিতে আফ্রিকান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক জানায়, দেশটির ৮০ শতাংশ লোকের দৈনিক উপার্জন দুই ডলারেরও কম। তবে রিপোর্টের বিষয়ে কিছুটা দ্বিমত জানিয়ে নাইজেরিয়ার বাণিজ্য, শিল্প ও বিনিয়োগমন্ত্রী ওকেচুকউ এনেলামাহ বলেন, রিপোর্টে যেসব সংখ্যা দেয়া হয়েছে, তা ছিল নাইজেরিয়ার মন্দার সময়ের। আমি বরং আশা করি, নাইজেরিয়ার অর্থ-সংক্রান্ত নীতির কারণে দেশটিতে দারিদ্র্য আরো হ্রাস পাবে। 

ব্রুকিংস ইনস্টিটিউশনের কর্মকর্তা হোমি খারাস বলেন, আর্থসামাজিক সমস্যা, খারাপ সরকার ও খারাপ শাসনের সাথে সাথে দ্রুত হারে জনসংখ্যা বৃদ্ধির কারণে নাইজেরিয়ায় এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। তিনি আরো বলেন, নাইজেরিয়া একটি ধনী রাষ্ট্র। এর বেশির ভাগ আয় আসে তেল বিক্রি থেকে। কিন্তু এ অর্থ সরাসরি সাধারণ মানুষের কাছে যায় না। ফলে সেখানে দারিদ্র্য বিরাজ করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ