শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

পুলিশের খাতায় পলাতক পাঁচ বছরের কারাদণ্ড নিয়ে প্রকাশ্যে ঘুরছেন রাজশাহীর আইয়ুব  

রাজশাহী অফিস : প্রতারণার মামলায় আদালতের রায়ে  জেল হয়েছে অন্তত পাঁচ বছর আগে। অথচ জেল না খেটেই দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছেন আসামী। শুধু তা-ই নয়, দণ্ড মাথায় নিয়ে তিনি রীতিমতো দোকান বসিয়ে ব্যবসাও করে যাচ্ছেন প্রকাশ্যেই। অথচ পুলিশের চোখে নিখোঁজ তিনি।  এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে রাজশাহীতে। এখানকার পঞ্চবটি এলাকার বাসিন্দা ও সাহেব বাজারের ফুটপাতের ‘মামা হালিম’ ব্যবসায়ী আইয়ুব আলী তালুকদারের বিরুদ্ধে ২০১০ সালে একটি প্রতারণার মামলা হয়। এতে ২০১৩ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি ৫ বছরের কারাদণ্ড ও ৩০ হাজার টাকা জরিমানা এবং জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদণ্ড হয়। মামলায় তিনি উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। সেখানেও সাজা বহাল থাকে। তিনি হাইকোর্টে গেলে ২০১৬ সালের জানুয়ারি মামলা খারিজ হয়ে যায়। ফলে তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ইস্যু হয় এবং তা বোয়ালিয়া থানায় পাঠানো হয়। কিন্তু এই ওয়ারেন্ট তামিল হয়নি। বরং পুলিশের চোখে পলাতক। সূত্র জানায়, প্রভাবশালী রাজনৈতিক মহলের ছত্রছায়ায় তিনি গ্রেফতার এড়িয়ে নগরীর প্রাণকেন্দ্র সাহেব বাজারে ব্যবসা করছেন। দণ্ড প্রাপ্ত আসামী হয়েও আইউব আলী প্রায়ই দাওয়াত পান সামাজিক-সাংস্কৃতিক এমনকি সরকারি অনুষ্ঠানেরও। এব্যাপারে আইয়ুব আলী তালুকদারের বক্তব্য, তিনি জামিনে আছেন। বিষয়টি তার উকিল জানেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ