বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০
Online Edition

পোল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে আশা বাঁচিয়ে রাখল কলম্বিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক : পোল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে শেষ ষোলর আশা বাচিয়ে  রাখল কলম্বিয়া। হার দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করা দুই দলের লড়াইয়ে ৩-০ গোলে জিতেছে কলম্বিয়া। একাদশে ফেরা ডিফেন্ডার ইয়েরি মিনা প্রথমার্ধে এগিয়ে নেন দলকে। দ্বিতীয়ার্ধে লক্ষ্যভেদ করেন ফালকাও ও কুয়াদরাদো। কাজানে ‘এইচ’ গ্রুপের ম্যাচটিতে প্রায় পুরোটা সময় ১০ জন নিয়ে খেলে জাপানের কাছে ২-১ গোলে হেরেছিল কলম্বিয়া। সেনেগালের বিপক্ষে একই ব্যবধানে হার দিয়ে অভিযান শুরু করা পোল্যান্ড ছিটকে গেল বিশ্বকাপ থেকে। কাজান অ্যারেনায় রোববার শুরুতে কিছুক্ষণ কলম্বিয়াকে চাপে রাখে পোল্যান্ড। তবে সে সময়ে ভালো কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেননি রবের্ত লেভানদফস্কিরা। শুরুর আক্রমণের ঝাপটা সামলে ধীরে ধীরে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় হোসে পেকারমানের শিষ্যরা। কলম্বিয়ার পাসিং ফুটবলে কোনঠাসা হয়ে পড়ে  পোলিশা। বল হারানোর পর প্রতিবারই ফিরে পেতে সময় লেগেছে পোল্যান্ডের। নিজেদের রক্ষণ সামলানোর দিকেই বেশি মনোযোগ দিতে হয়েছে তাদের। ফালকাও, রদ্রিগেস, কুয়াদরাদোদের উপস্থিতি ভীতি ছড়িয়েছে ইউরোপের দলটির রক্ষণে। ৩৭তম মিনিটে জুভেন্টাসের মিডফিল্ডার কুয়াদরাদোর কারিকুরিতে প্রথম ভালো সুযোগ পায় কলম্বিয়া। দুরূহ কোণ থেকে নেওয়া শট ফিরিয়ে দেন ভয়চেখ স্ট্যাসনি। একাদশে ফেরা মিনার দারুণ গোলে ৪০তম মিনিটে এগিয়ে যায় কলম্বিয়া। রদ্রিগেসের চমৎকার ক্রস লাফিয়ে জালে পাঠান অরক্ষিত বার্সোলানা ডিফেন্ডার। ক্রস ঠেকাতে ঝাঁপিয়েছিলেন পোলিশ গোলরক্ষক কিন্তু বলের নাগাল পাননি। বিশ্বকাপে এনিয়ে টানা ১০ ম্যাচে নিজেদের জাল অক্ষত রাখতে ব্যর্থ হল পোল্যান্ড। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও মাঝমাঠের নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখে কলম্বিয়া। তাদের আক্রমণ সামলে ৫৯তম মিনিটে নিজেদের প্রথম ভালো সুযোগ তৈরি করে পোল্যান্ড। পিছন থেকে উড়ে আসা বল বুক দিয়ে নামিয়ে বাঁ পায়ের বুলেট গতির শট নেন লেভানদফস্কি। তবে ছুটে এসে দারুণ ব্লক করে দলকে বাঁচান গোলরক্ষক দাভিদ অসপিনা।গোলের জন্য মরিয়া পোল্যান্ডের বিপদ আরও বাড়ান ফালকাও। প্রতি আক্রমণ থেকে দারুণ গোলে ব্যবধান বাড়ান কলম্বিয়া অধিনায়ক। ৭০তম মিনিটে কুয়াদরাদোর দারুণ পাস খুঁজে পায় অফ সাইডের ফাঁদ এডিয়ে ডি বক্সে ঢোকা ফালকাওকে। মোনাকো স্ট্রাইকারের সামনে ছিলেন কেবল গোলরক্ষক। বিপদ দেখে এগিয়ে এসেছিলেন কিন্তু কাজ হয়নি। ঠাণ্ডা মাথায় কোনাকুনি শটে জাল খুঁজে নেন ফালকাও। কলম্বিয়ার সর্বকালের সেরা গোলদাতার বিশ্বকাপে এটি প্রথম গোল। পাঁচ মিনিট পর জালের দেখা পান ম্যাচ জুড়ে দারুণ ফুটবল খেলা কুয়াদরাদো। আক্রমণ করার সময়ে ভুল পাসে কলম্বিয়ার রক্ষণে বল হারায় পোল্যান্ড। বল পেয়ে মাঝমাঠ থেকে রদ্রিগেস বল বাড়ান কুয়াদরাদোকে। মাঝমাঠ থেকে অনেকটা দৌড়ে ডি বক্সে ঢুকে ডানদিকের বার ঘেঁষে বল জালে পাঠান এই মিডফিল্ডার। ব্যবধান কমানোর সুযোগ এসেছিল লেভানদফস্কিদের সামনে। তবে কোনো সুযোগই কাজে লাগাতে পারেনি তারা। ব্যবধান আর বাড়াতে পারেনি কলম্বিয়াও। আগামী বৃহস্পতিবার নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে জাপানের বিপক্ষে খেলবে পোল্যান্ড। একই সময়ে সেনেগালের মুখোমুখি হবে কলম্বিয়া।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ