বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১
Online Edition

নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে যিনিই দায়ী হবেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে -সিইসি

গাজীপুর সংবাদদাতাঃ প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা বলেছেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে। নির্বাচন যদি সুষ্ঠু না হয় এর জন্য যিনিই দায়ী হবেন, তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। আইনগত ব্যবস্থা নিতে আমাদের যে পর্যায়ে যাওয়া দরকার হবে, সে পর্যায়ে পর্যন্ত আমরা যাবো।
গতকাল বুধবার দুপুরে গাজীপুরে জেলা প্রশাসকের ভাওয়াল সম্মেলন কক্ষে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে সমন্বয় কমিটির বিশেষ আইনশৃঙ্খলা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদান শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি ওইসব কথা বলেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার কেএম আলী আজম, নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো রফিকুল ইসলাম, বেগম কবিতা খানম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বিভিন্ন বাহিনীর কর্মকর্তাগণ এবং নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় সিইসি নির্বাচন কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণের পর কেন্দ্রে ভোট গণনা শেষে কেন্দ্রে তা প্রকাশ করতে হবে। এসময় তিনি যেসব ভোট কেন্দ্রে প্রবেশের রাস্তায় জলাবদ্ধতা রয়েছে, ভোটারদের চলাচলের জন্য সেসব রাস্তার উন্নয়ন এবং যেসব কেন্দ্রে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে সেগুলোতে শীঘ্রই বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগকে নিন্দেশ দেন।
সিইসি সাংবাদিকদের বলেন, গাজীপুরে নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সর্বাত্মক চেষ্টা করবে বলে প্রশাসন আমাদের কাছে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন। খুলনার কিছু কেন্দ্রের অনিয়মের প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, এখানকার জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর যারা আছেন তারা আমাদের কথা দিয়েছেন গাজীপুরে সেটা হবে না।
নির্বাচনে প্রশাসন স্ট্যাফিং করে এ কথাটি প্রত্যাখান করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছেন, প্রশাসন স্ট্যাফিংয়ের কোন সুযোগ দেয় না, সুযোগ করে না এবং তারা সহযোগিতা করে না। স্ট্যাফিং করার জন্য কিছু দুস্কৃতিকারী থাকে, তারা চেষ্টা করে। খুলনায় ৪-৫টা কেন্দ্রে তারা স্ট্যাফিং করার সুযোগ পেয়েছে। অন্যান্য কেন্দ্রে স্ট্যাফিং হয়নি। সেগুলোতে ভাল নির্বাচন হয়েছে। খুলনার ঘটনা গাজীপুরে পুনরাবৃত্তি হবে না।
সিইসি এসময় প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে বিএনপির মেয়র প্রার্থীর অভিযোগের প্রসঙ্গে বলেন, এ ব্যাপারে সুনির্দিংষ্টভাবে অভিযোগ দিতে হবে। আর সেনা মোতায়েনের বিষয়ে তিনি বলেন, সিটি নির্বাচনে কোন সেনা মোতায়েন হবে না। তিনি বলেন, গাজীপুরের বর্তমান আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আমি সন্তুষ্ট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ