শুক্রবার ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Online Edition

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫

সংগ্রাম ডেস্ক : গতকাল বুধবার বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় পাঁচজন নিহত ও চারজন আহত হয়েছেন। আহতদের স্থানীয় স্বাস্থ্য ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে বলে আমাদের সংবাদদাতারা জানান।
সিলেটে সড়ক দুর্ঘটনায়
চালকসহ তিনজন নিহত
সিলেট ব্যুরো : সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার চন্ডিপুলে সড়ক দুর্ঘটনায় সিএনজি অটোরিকশা চালকসহ তিনজন নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন আরো তিনজন। গতকাল বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
নিহতদের একজনের পরিচয় জানা গেছে। তিনি হলেন- গোলাপগঞ্জ উপজেলার চন্দরপুরের রশিদ মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন (৩০)। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাকি দুইজনের পরিচয় সনাক্ত করা যায়নি। আহতরা হলেন- কিশোরগঞ্জের গোবিন্দগঞ্জ এলাকার আবদুল হাসিমের ছেলে জসিম উদ্দিন (৪৫), গোলাপগঞ্জের চন্দরপুরের জমির হোসেনের স্ত্রী সোহানা বেগম (৪৫) ও তার ছেলে মো. হাফিজ (২০)।
দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি খায়রুল ফজল জানান, চন্ডিপুল এলাকায় সিলেট শহরমুখী একটি সিএনজি অটোরিকশাকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় একটি ট্রাক। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই অটোরিকশার চালক ও দুই যাত্রী নিহত হন। তিনি জানান, নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আহতদেরও একই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
নীলফামারী সংবাদদাতা  নীলফামারীর ডোমারে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে রমজান আলী(১৩) নামে সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্র নিহত হয়েছে। বৃধবার সকালে উপজেলার ডোমার সদর ইউনিয়নের চিলাই নামকস্থানে দুর্ঘটনাটি ঘটে। রমজান আলী সদর ইউনিয়নের চিলাই জুম্মাপাড়া গ্রামের মোঃ দুলু মিয়ার ছেলে ও বড় রাউতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র ছিল। স্থানীয়রা জানায়,সকালে প্রাইভেট পড়ে সাইকেল  যোগে বাড়িতে আসছিল রমজান। চিলাই নামকস্থানে আসার সময় ডোমার থেকে দেবীগঞ্জগামী একটি ট্রাকের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই সে নিহত হয়। ঘাতক ট্রাকটি পালিয়ে যায়।
ডোমার থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ মোকছেদ আলী মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
কালীগঞ্জ(লালমনিরহাট)সংবাদদাতা : লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় ভুট্টাবোঝাই ট্রলি-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে অতুল চন্দ্র রায়(৩৬) নামে একজন নিহত হয়েছেন। অপর এক নারী আহত হয়েছেন।
গতকাল বুধবার বিকেল ৪টার দিকে কালীগঞ্জ উপজেলার তুষভান্ডার ইউনিয়নের সুন্দ্রাহবী এলাকার লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের পাশে আঞ্চলিক সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এদিকে অতুলের সাথে এক নারীকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করায় । আহত নারী অতুল চন্দ্রের শ্যালিকা বলে জানা গেছে।
নিহত অতুল চন্দ্র রায় উপজেলার দলগ্রাম ইউনিয়নের পশুরামপাড়ার গ্রামের মৃত প্রিয় নাথের  ছেলে।
কালীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) আনোয়ার  হোসেন বলেন,অতুল চন্দ্র রায় ব্যক্তিগত কাজে একজন নারীকে সুন্দ্রাহবী দিয়ে তুষভান্ডার বাজার আসছিলেন। আসার পথে পথে  মোটরসাইকেল আরোহীর সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি ভুট্টা ভর্তি ট্রলির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে অতুল চন্দ্র ট্রলিতে চাপা পড়ে ঘটনা স্থলে মৃত্যু হয়। নিহতের পরিবারের কোন অভিযোগ বা আপত্তি না থাকায় লাশটি উদ্ধার করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে ওসি জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ