সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

বিচার বিভাগের পবিত্রতা রক্ষায় বিচারপতি আমিরুল কবীর চৌধুরীর অবদান অপরিসীম

বিচারপতি আমিরুল কবির চৌধুরীর স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট, হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি জে.বি.এম. হাসান

চট্টগ্রাম ব্যুরো : গত ২৫মে শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসকøাব মিলনায়তনে বিচারপতি আমিরুল কবীর চৌধুরীর স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ সুপ্রিমকোট,হাইকোট বিভাগের বিচারপতি জে.বি.এম. হাসান বলেছেন- মানুষ হিসেবে বিচারপতি আমিরুল কবীর চৌধুরী ছিলেন অনেক বড় মাপের। কর্মগুণে তিঁনি কতটা সৎ ছিলেন তার উদাহরণ আজকের বিচার বিভাগ। তিঁিন সৎ ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে বিচার বিভাগের পবিত্রতা রক্ষা করেছেন। বিচারপতি আমিরুল কবির চৌধুরী এজলাশে উঠতে ওজু করে উঠতেন। কারণ তিঁনি মনে করতেন এটি তার পবিত্র দায়িত্ব। এই বিচারে কোন ত্রুটি হলে আল্লাহর কাছে জবাবদিহি করতে হবে। তিনি মরহুম বিচারপতি আমিরুল কবীর চৌধুরীর জীবন কর্মকে আলোচনা করে আরো বলেছেন বিচারপতি হিসেবে তিঁনি যেমন বাংলাদেশে সমাদৃত তেমনি সমাজকর্মী হিসেবেও ছিলেন ব্যাপক পরিচিত। বর্তমান সময়ে তার মত মহৎপ্রাণ মানুষ সমাজে পাওয়া কঠিন। মহান আল্লাহর দরবারে তাঁর শান্তি কামনা করে প্রতিবছর এই ধরনের স্মরণ সভার মাধ্যমে তাঁকে স্মরণ করতে তিনি আহবান জানান।
কক্সবাজার সমিতি চট্টগ্রামের উদ্যোগে আয়োজিত স্মরণ সভায় সমিতির সভাপতি প্রফেসর অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরিন আক্তার,ফেনী জেলার অতিরিক্ত জেলা জজ মোহাম্মদ আবু হান্নান ও কক্সবাজার সমিতি চট্টগ্রামের প্রধান উপদেষ্টা এডভোকেট মাহমুদুর রহমান চৌধুরী। স্মরণ সভায় আরও বক্তব্য রাখেন জয়নাল আবেদীন মুকুল,  মাওলানা মনিরুল মান্নান, শফিউল আলম, মোয়াজ্জেম হোসেন চৌধুরী,  হাফেজ মোহাম্মদ আমান উল্লাহ, এডভোকেট আবুল হাশেম, ইঞ্জিনিয়ার আসাদুল কবির চৌধুরী,মোহাম্মদ কায়েস চৌধুরী, প্রফেসর নাজেমুল হক ও প্রফেসর মাঈনুদ্দিন। মোনাজাত পরিচালনা করেন ইসলামীক ফাউন্ডেশন চট্টগ্রামের বিভাগীয় উপ-পরিচালক বোরহান উদ্দিন মোহাম্মদ আবু হাসান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ