রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে ও ইসিজি মেশিন দীর্ঘদিন ধরে অকেজো

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা : চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার দরিদ্র অহায় জনগণের একমাত্র ভরসা আলমডাঙ্গার হারদীতে অবস্থিত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এখন নিজেই রুগীতে পরিণত হয়েছে। দীর্ঘ ৪-৫ বছর ধরে হাসপাতালে জরুরী এক্স-রে মেশিনটি নষ্ট হয়ে পড়ে আছে। এক্সরে মেশিনের সমস্ত শরীর জুড়ে ধুলার আস্তরণ দীর্ঘদিনের অবহেলার সাক্ষ্য দিচ্ছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ মেরামতের জন্য কার্যকর কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। হাসপাতালের বর্তমান ইনচার্জ ডা. মাসুদ রানা যোগদানের পর থেকে হাসপাতালের পরিবেশ অনেকটা ভালো হলেও এক্স-রে মেশিনটি আগের অবস্থায় পড়ে আছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাসুদ রানার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন আমি এসে দেখছি এক্স-রে মেশিনটি নষ্ট হয়ে আছে। আমি কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। আশা করছি শিগগিরই একটা ব্যবস্থা হবে। তিনি বলেন- আমার মাথায় আসে না যে বাইরের কমদামের মেশিন ভালোভাবে চলে অথচ আমাদের হাসপাতালের দামি এক্স-রে মেশিন সারালেও কেন দুদিনও চলে না। দরিদ্র রোগীদের বাধ্য হয়ে ছুটতে হয় বাইরে।
ভুক্তভোগীরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে হাসপাতালের এক্সেÑরে ও ইসিজি মেশিন খারাপ হয়ে পড়ে আছে। গুরুত্বপূর্ণ এই দুটি যন্ত্র নষ্ট থাকার ফলে রোগীদের বাইরে থেকে এক্সÑরে ও ইসিজি করাতে হয়। গরিব রোগীদের জন্য অনেকটা কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। আলমডাঙ্গাবাসীর প্রত্যাশা বৃহত্তর উপজেলার দরিদ্র জনগোষ্ঠীর চিকিৎসার একমাত্র অবলম্বন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে এবং ইসিজি মেশিন মেরামতসহ সকল সমস্যা সমাধানে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ দ্রুত পদক্ষেপ নেবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ