ঢাকা, বুধবার 12 August 2020, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ জিলহজ্ব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

কলকাতা গেলেন প্রধানমন্ত্রী

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে দুই দিনের পশ্চিমবঙ্গ সফরের উদ্দেশ্যে আজ (শুক্রবার) সকালে ঢাকা ত্যাগ করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা আজ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে করে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন এবং স্থানীয় সময় সকাল ৯টার দিকে কলকাতার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

তিনি নরেন্দ্র মোদিকে সাথে নিয়ে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধন করবেন এবং তার সাথে বৈঠকে অংশ নেবেন।

সফরকালে প্রধানমন্ত্রী বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে যোগদান এবং আসানসোলের কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাহিত্যের ওপর ডক্টরেট ডিগ্রিও গ্রহণ করবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এবং প্রধানমন্ত্রীর রাজনীতি, অর্থনীতি, পররাষ্ট্র ও জ্বালানি বিষয়ক চার উপদেষ্টা তার সফরসঙ্গী হিসেবে থাকবেন।

সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারযোগে শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে পৌঁছাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাকে অভ্যর্থনা জানাবেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য অধ্যাপক সবুজ কলিসেন। 

এছাড়া রবীন্দ্র ভবনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাবেন। প্রধানমন্ত্রী সেখানে রবীন্দ্র চেয়ারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন এবং পরে আম্রকাননের সমাবর্তন এলাকায় পৌঁছাবেন এবং অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

অনুষ্ঠানে উভয় প্রধানমন্ত্রী বক্তব্য দেবেন। পরে সমাবর্তন অনুষ্ঠান শেষে তারা যৌথভাবে বিশ্বভারতীতে বাংলাদেশ ভবনের ফলক উন্মোচন করবেন।

উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি মধ্যাহ্নভোজের সময় দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসবেন। বৈঠক শেষে তিনি কলকাতার উদ্দেশে শান্তিনিকেতন ছাড়বেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কলকাতায় ফিরে জোড়াসাঁকোর 'ঠাকুর বাড়ি' পরিদর্শন করবেন। পরে স্থানীয় ব্যবসায়ী নেতারা তার সাথে সাক্ষাৎ করবেন।

শেখ হাসিনা সাহিত্যে ডক্টরেট ডিগ্রি গ্রহণে শনিবার আসানসোলের কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে যাবেন। সেখানে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য দেয়ার কথা রয়েছে। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখবেন।

অনুষ্ঠান শেষে কলকাতায় ফিরে প্রধানমন্ত্রী নেতাজি জাদুঘর পরিদর্শন করবেন। তিনি সেখানে নেতাজির বিছানায় ফুলের শুভেচ্ছা জানাবেন এবং দর্শনার্থী বইতে স্বাক্ষর করবেন।

প্রধানমন্ত্রী শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে দেশে ফিরবেন।

সূত্র: ইউএনবি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ