শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

মাওবাদীদের হামলায় ভারতে ৭ জওয়ান নিহত

২১ মে, আনন্দবাজার : ভারতের ছত্তিসগড়ে দন্তেওয়াড়ায় মাওবাদীদের হামলায় অন্তত ৭ জওয়ান নিহত হয়েছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহের সফর শুরুর দিনেই এই হামলায় চিন্তিত বিজেপি প্রশাসন। তবে মুখ্যমন্ত্রী রামন সিংহের মতে, মাওবাদী নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় বসা যেতেই পারে। মাওবাদী সমস্যা উন্নয়নের মাধ্যমে মেটানো সম্ভব।

পুলিশ জানিয়েছে, গত রোববার দুপুরে দন্তেওয়াড়ার চোলনার-কিরানডুল রাস্তার ওপরে টহল দিচ্ছিল ছত্তিসগড় আর্মড ফোর্স ও ডিস্ট্রিক্ট ফোর্সের একটি যৌথ দল। ওই এলাকায় রাস্তা তৈরির জন্য ট্রাকে কাঁচামাল সরবরাহ করা হচ্ছিল। তারই নিরাপত্তার জন্য টহলদারির ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন। দুপুর বারোটা নাগাদ একটি কালভার্টের কাছে যৌথ বাহিনীর গাড়িতে ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণের ধাক্কায় গাড়িটি খাদে পড়ে যায়।

এতে ছয় জওয়ান ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় এক জওয়ানের। নিহত জওয়ানদের কাছ থেকে দুটি একে-৪৭-সহ বেশ কিছু অস্ত্র লুট করেছে মাওবাদীরা। তাদের খোঁজে ওই এলাকায় চিরুনি তল্লাশি শুরু করেছে বাহিনী।

পুলিশকর্তাদের মতে, সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের গঢ়চিরৌলি, ওড়িশার মালকানগিরি ও ছত্তিসগড়ের বিজাপুরে বাহিনীর অভিযানে মাওবাদীদের বড় ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তারই বদলা হিসেবে এই হামলা। হামলার কড়া সমালোচনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী রামন সিংহ। তার বক্তব্য, ‘এ থেকেই বোঝা যায়, রাস্তার মতো প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো থেকেও গ্রামবাসীদের বঞ্চিত করতে চায় মাওবাদীরা। তবে এভাবে বাহিনীর মনোবল কমানো যাবে না। গোটা ছত্তিসগড়ে সারা বছরের জন্য ব্যবহারযোগ্য রাস্তা তৈরি হবেই।’ জওয়ানদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।

তবে বরিবার (২০ মে) অন্য এক সাক্ষাৎকারে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, মাওবাদী নেতারা আলোচনা চাইলে তাদের সঙ্গে কথা বলতে রাজ্যের বিজেপি সরকারের আপত্তি নেই। তবে মাওবাদীদের পলিটব্যুরো সদস্যরা যোগ না দিলে আলোচনায় লাভ হবে না বলে মনে করেন তিনি। তার কথায়, ‘উন্নয়নের মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করা সম্ভব। যে সব এলাকায় ভাল যোগাযোগ ব্যবস্থা তৈরি হয়েছে সেখানে মাওবাদী কার্যকলাপও কমেছে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ