বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে তারেক রহমানের লিগ্যাল নোটিশ

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ‘বাংলাদেশের নাগরিকত্ব বর্জন করেছেন’ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের এমন বক্তব্যের প্রতিবাদে তাকে আইনি নোটিশ দেওয়া হয়েছে। গতকাল সোমবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে সরকারি ডাকযোগে নোটিশটি পাঠান তারেক রহমানের আইনজীবী ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল। একইসঙ্গে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করায় দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম ও কালের কণ্ঠ পত্রিকার সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলনকেও নোটিশ পাঠানো হয়েছে।
কায়সার কামাল বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বাংলাদেশের নাগরিকত্ব বর্জন করেছেন’ মর্মে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম যে বক্তব্য দিয়েছেন এবং সেই বক্তব্য যে দু’টি পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে, তা প্রত্যাহার করতে বলা হয়েছে। তারেক রহমানের নির্দেশে ওই বক্তব্য প্রত্যাহার চেয়ে একটি নোটিশে পাঠানো হয়েছে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে বক্তব্য প্রত্যাহার না করলে প্রতিমন্ত্রীসহ তিনজনের বিরুদ্ধে দেওয়ানি ও ফৌজদারি আইনে আলাদাভাবে মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন কায়সার কামাল। বিএনপি চেয়ারপার্সনের মিডিয়া উইং সদস্য শায়রুল কবির খানও এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, আমরা পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বিরুদ্ধে একটি লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছি। নোটিশে বলা হয়েছে, তিনি যে প্রকাশ্যে বক্তব্য দিয়েছেন তারেক রহমান বাংলাদেশের নাগরিকত্ব বর্জন করেছেন, এই বিষয়ে তারেক রহমানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এটা মিথ্যা, বানোয়াট ও মোটিভেটেড। কায়সার কামাল আরও বলেন, পাশাপাশি লিগ্যাল নোটিশে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ১০ দিন সময় দিয়েছেন। এরমধ্যে শাহরিয়ার আলমকে প্রমাণ দেখাতে হবে তারেক রহমান নাগরিকত্ব বর্জন করেছেন। অন্যথায় ১০ দিনের মধ্যে পাবলিকলি অ্যাপোলজি জানাতে হবে। না হলে তার বিরুদ্ধে লিগ্যাল অ্যাকশন নেওয়া হবে।
প্রসঙ্গত, গত শনিবার লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংবর্ধনা দিতে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ আয়োজিত অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে সবুজ পাসপোর্ট জমা দিয়ে বাংলাদেশের নাগরিকত্ব বর্জন করেছেন তারেক রহমান। তিনি প্রশ্ন তোলেন, সেই তারেক রহমান কীভাবে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন।  

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ