মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে মাঠে নামছেন ৩৬ হাজার ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক 

 

বগুড়া অফিস: চাকরি জাতীয়করণসহ কয়েক দফা দাবিতে আবারো আন্দোলনে নামছেন ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষক সমাজ। আগামী মে মাসে দেশের ৯ হাজার মাদরাসায় কর্মরত প্রায় ৩৬ হাজার শিক্ষক কঠোর কর্মসূচী নিয়ে মাঠে নামবেন বলে জানা গেছে। 

বাংলাদেশ সংযুক্ত ইবতেদায়ী মাদরাসা টিচার্স সোসাইটি সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে প্রাইমারী স্কুলের একজন শিক্ষক যে বেতন-ভাতা পাচ্ছেন ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষক তা চারভাগের একভাগ পাচ্ছেন। অথচ মাদরাসার শিক্ষকরা একই পাঠ্যবইসহ অতিরিক্ত ধর্মীয় শিক্ষা দিতে হয়। দুর্মূল্যের বাজারে অল্প বেতনভাতা দিয়ে তাদের জীবন যাপন কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। এ ছাড়া ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষার্থীরা উপবৃত্তি বা টিফিন ভাতা পান না। 

সূত্র জানায়, ইবতেদায়ী শিক্ষকদের পিটিআই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নেই। এ ছাড়া শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুসারে তাদের বেতন স্কেল দেয়া হয় না। দাখিল ,আলিম, ফাজিল ও কামিল মাদরাসা ভবন থেকে পৃথক ভবন করা হয়নি। সেই সাথে ইবতেদায়ী শিক্ষা ব্যবস্থার পূর্ণাঙ্গ নীতিমালা নেই। তাই নীতিমালা প্রণয়ন করা জরুরী। তাই চাকরি জাতীয়করসহ বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের দাবিতে আগামী মে মাসের প্রথম সপ্তাহে কর্মসূচী নিয়ে মাঠে নামবেন ইবতেদায়ী শিক্ষকরা। তারা সারাদেশে একযোগে মানববন্ধন, প্রশাসনের কাছে স্মারকলিপি পেশ ও অনশন কর্মসূচী শিগগিরই ঘোষণা করবেন বলে জানান নেতৃবৃন্দ। 

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সংযুক্ত ইবতেদায়ী মাদরাসা টিচার্স সোসাইটির কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল হামিদ খান বলেন, সরকারি প্রাইমারী স্কুলের শিক্ষকদের মতো ইবতেদায়ী শিক্ষকদের বেতন স্কেলসহ অন্যান্য দাবি পূরণের জন্য ইতোমধ্যে নানা কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। কিন্তু দাবি পূরণ হয়নি। তাই কর্মসূচী নিয়ে ঢাকামুখী কর্মসূচী নিয়ে মাঠে নামবে শিক্ষকরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ