মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

কোটা সংস্কার আন্দোলনের মতো ভোটের অধিকার আদায়ে মানুষ ঐক্যবদ্ধ হবে -খন্দকার মাহবুব হোসেন

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রবীণ আইনজীবী এডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, দক্ষিণাঞ্চল থেকে স্বৈরাচারবিরোধী গণআন্দোলন শুরু হবে। কিভাবে অধিকার আদায় করতে হয় তা বাংলার মানুষ জানে। সারা দেশে ছাত্ররা কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন করেছে। আন্দোলনের ফলে প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সংসদে কোটা বাতিল করার ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, এমন একটি শান্তিপূর্ণ আন্দোলন হবে, যে মানুষ ভোটের অধিকার আদায়ের জন্য ঐক্যবদ্ধ হবে। তিনি বলেন, কোনো স্বৈরাচারের অধীনে দেশের মানুষ থাকতে পারে না। আমরা স্বৈরাচারমুক্ত বাংলাদেশ দেখতে চাই। মানুষের ভোটের অধিকার দেখতে চাই। সে কারণে নিরদলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই। 

গতকাল বৃহস্পতিবার বরগুনার জেলার বেতাগী উপজেলা বিএনপি অফিস উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খন্দকার মাহবুব হোসেন এসব কথা বলেন। এতে বরগুনা জেলা বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবদুল হালিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহফুজুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। 

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, বর্তমান সরকারের পায়ের নিচে মাটি নেই। যারা ফেসবুক ও ইউটিউব দেখেছেন তারা দেখেছেন লন্দনে কি হয়েছে। দেশে গুম ও নির্যাতনের জবাব সেখানে দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, জনগণ ঐক্যবদ্ধ হলে কোনো স্বৈরাচার টিকতে পারবে না। এজন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি আরো বলেন, দক্ষিণাঞ্চল-খুলনা থেকে স্বৈরাচার বিরোধী গণআন্দোলন গড়ে তোলা হবে। 

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে দেশে একতরফা কোনো নির্বাচন করার চেষ্টা করা হলে দেশের মানুষ তা মেনে নেবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করে প্রহসনমূলক মামলা থেকে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে চাই। 

বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর ছাত্রলীগের হামলা: গতকাল বরগুনা জেলার বেতাগী উপজেলা বিএনপি অফিস উদ্বোধন শেষে বেত্যাগী পৌর বিএনপি আফিস উদ্বোধন ছাত্রলীগ বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করে। এতে বেশ কয়েকজন বিএনপি নেতাকর্মী আহত হন। এ বিষয়ে খন্দকার মাহবুব হোসেন অভিযোগ করেন, আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের ছেলেরা হামলা করেছে। এই কি দেশের গণতন্ত্রের নমুনা। ছাত্রলীগের এই কর্মকা- শেখ হাসিনা সরকারের পতন ত্বরান্বিত করবে। তিনি বলেন, ছাত্রলীগৈর হামলায় আমাদের বেশ কিছু নেতাকর্মী আহত হয়েছে। বিএনপির পৌর অফিস তছনছ করা হয়েছে। এভাবে মানুষের স্বাধীন সমাবেশে হামলা করা হলে দেশে গণবিষ্ফোরণ হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ