মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

চট্টগ্রামে কোচিং সেন্টারের মালিককে প্রহারের অভিযোগ মহানগর ছাত্রলীগ সেক্রেটারি রনির বিরুদ্ধে

চট্টগ্রাম ব্যুরো :চট্টগ্রাম বিজ্ঞান কলেজের অধক্ষ্য ডঃ জাহেদ খানকে প্রহারের পর এবার ইউনি এইড কোচিং সেন্টার এর মালিক রাশেদকে ২০ লাখ টাকা চাঁদার জন্য বেদম প্রহারের অভিযোগ উঠেছে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সেক্রেটারি  নুরুল আজিম রনির বিরুদ্ধে। বেদম প্রহারের এ ঘটনায় সিসিটিভি ক্যামেরায় ধারণ করা একটি ভিডিও ফুটেজ ফেসবুক ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছে। দুই মাস আগে (১৭ ফেব্রুয়ারি) সংগঠিত এ ঘটনায় মারধরের শিকার মো. রাশেদ মিয়া বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগরীর পাঁচালাইশ থানায় রনির বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগে মারধরের শিকার রাশেদ জানান, গত ফেব্রুয়ারি মাসের ১৭ তারিখে রনি আমার জিইসি মোড়ের অফিসে এসে ২০লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। আমি চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় সে আমাকে মারধর করে। এরপর গত ১৩ এপ্রিল রনি আমাকে তার মুরাদপুরের অফিসে ডেকে নিয়ে আবারও মারধর করে। ওইদিন রাতে সে আমার সুগন্ধা আবাসিক এলাকার বাসায় সন্ত্রাসী পাঠিয়ে আমার ও আমার স্ত্রীর পাসপোর্ট এবং ৩৫হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এঘটনায় আমি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পাঁচলাইশ থানার ওসি মহিউদ্দিন মাহমুদ বলেন, ছাত্রলীগ নেতা রনির বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ হয়েছে। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।

এ বিষয়ে জানতে নগর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি সাংবাদিকদের  বলেন, রাশেদের সাথে আমার কোচিং ব্যবসা রয়েছে। তিনি আমার পার্টনার।  আমার সাড়ে ৯লাখ টাকা সে মেরে দিয়েছে। এ নিয়ে তার সাথে বিরোধ। ঘটনার পর রাশেদের সাথে আমার সম্পর্ক ভালো হয়ে গেছে।  তার কোন অভিযোগ ছিল না। কোন চাঁদা চাওয়ার বিষয় না। দুই মাস আগে এ ঘটনাকে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ (যুবলীগের টিনু) পুলিশকে চাপ দিয়ে মামলা করিয়েছে।  

উল্লেখ্য, এর আগে গতমাসে নগরীর চকবাজার এলাকায় বেসরকারি কলেজ চট্টগ্রাম বিজ্ঞান কলেজের অধ্যক্ষ ড. জাহেদকে মারধর করে রনি। এ ঘটনার ভিডিও ফুটেজ সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পরে রনিসহ তার সহযোগিয়ের বিরুদ্ধে চকবাজার থানায় মামলা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ