শুক্রবার ১৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

সরকারি আমানতের অর্ধেক বেসরকারি ব্যাংকে রাখতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশ

 

স্টাফ রিপোর্টার: সরকারি, আধা-সরকারি প্রতিষ্ঠান, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার নিজস্ব তহবিলের মোট অর্থের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বেসরকারি ব্যাংকে রাখা যাবে। শুধু তা-ই নয়, কোনও প্রতিষ্ঠান চাইলে অ-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানে (এনবিএফআই) অথবা উভয় প্রতিষ্ঠানেও আমানত রাখতে পারবে। 

ঊুধবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ বিষয়ে একটি সার্কুলার পাঠানো হয়েছে দেশের সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর কাছে। এটি গত ৩১ মার্চ থেকে কার্যকর হবে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আওতায় সরকারের কাছ থেকে পাওয়া তহবিল এবং সরকারি, আধাসরকারি প্রতিষ্ঠান, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার নিজস্ব তহবিলের মোট অর্থের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বেসরকারি ব্যাংকে রাখার সুযোগ পাবে।

এতদিন সরকারি সংস্থাগুলো তাদের তহবিলের ৭৫ শতাংশ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে এবং বাকি ২৫ শতাংশ বেসরকারি ব্যাংকে রাখতো।

এর আগে গত ৩০ মার্চ এক বৈঠকে বেসরকারি ব্যাংক মালিকদের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারি প্রতিষ্ঠানের আমানতের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বেসরকারি ব্যাংকে রাখার সুযোগ দেওয়া হবে বলে জানান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এই সুযোগ দেওয়া হলে বেসরকারি ব্যাংকগুলো তুলনামূলক কম সুদে আমানত সংগ্রহ করে স্বল্প সুদে ঋণ দিতে পারবে বলে জানান ব্যাংক মালিকেরা। 

ব্যাংক খাতের তারল্য সংকট কাটাতে ওই অনুরোধ জানিয়েছিলেন তারা। এরপর গত ২ এপ্রিল অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এ-সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা বাংলাদেশ ব্যাংকের গবর্নরসহ সংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠানকে পাঠানো হয়। ওই নির্দেশনার সূত্র ধরে গত বুধবার এ সার্কুলার জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক।      

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ