শুক্রবার ১৭ জুলাই ২০২০
Online Edition

গাজী গ্রুপকে হারিয়ে শিরোপা স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখলো রূপগঞ্জ

স্পোর্টস রিপোর্টার : ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে সুপার লিগের ম্যাচে জয় পেয়েছে লিজেন্ড অব রূপগঞ্জ। আর এই জয়ে লিগ শিরোপা জয়ের আশা বাঁচিয়ে রাখল দলটি। গতকাল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে রূপগঞ্জ। ফলে ১৫ ম্যাচে ২০ পয়েন্ট এখন রূপগঞ্জের। সমান সংখ্যক ম্যাচে ২ পয়েন্ট বেশি নিয়ে শীর্ষে আছে আবাহনী লিমিটেড। লিগের  শেষ ম্যাচে এ দুটি দলই আবার মুখোমুখি হচ্ছে। সে ম্যাচে বড় ব্যবধানে জিতলে শিরোপা জিতবে রূপগঞ্জই। গতকাল মাঠে নামার আগে বিশাল সমীকরণ সামনে নিয়ে মাঠে নামে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। শিরোপা জন্য শেষ দুই ম্যাচ জিততে হবে বড় ব্যবধানে। তবে গতকাল তার প্রথম মিশনটা ভালোভাবেই সেরে রাখলো দলটি। গতকাল টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামে গাজী গ্রুপ। শুরুতেই ওপেনার ইমরুল কায়েসকে হারায় তারা। এরপর দলের সেরা ব্যাটসম্যান মুমিনুল হক ও আরেক ওপেনার মেহেদী হাসানও দ্রুত  ফেরেন। ৩৮ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া দলের হাল জাকের আলীকে নিয়ে ধরেন অধিনায়ক জহুরুল হক। গড়েন ৫১ রানের জুটি। কিন্তু এ জুটি ভাঙতেই যেন সব শেষ। উইকেট হারানোর মিছিলে যোগ দিয়ে দলটি ৪.২ ওভার বাকি থাকতেই ১৫২ রানে অলআউট হয়ে যায়। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩১ রান করেন অধিনায়ক জহুরুল। ৩০ রান করেন জাকের। শেষ দিকে নাঈম হাসান ২৩ রান করেন। রূপগঞ্জের পক্ষে ২৬ রানের খরচায় ৪টি উইকেট পান মোহাম্মদ শহীদ। এছাড়া ২টি করে উইকেট নেন পারভেজ রসুল ও আসিফ হাসান। ১৫৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি রূপগঞ্জেরও। দলীয় ১২ রানেই ইনফর্ম ব্যাটসম্যান আব্দুল মজিদকে হারায় তারা। তবে দ্বিতীয় উইকেটে অভিষেক মিত্রকে নিয়ে ৬৩ রানের জুটি গড়ে প্রাথমিক চাপ সামলে নেন আরেক ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম। দলীয় ৭৫ রানে নাঈম আউট হলে বাকি কাজ মুশফিকুর রহীমকে নিয়ে শেষ করেন অভিষেক। ফলে ২২.৫ ওভারেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় দলটি। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৭ রান করে অপরাজিত থাকেন অভিষেক। ৬১ বলে ৫টি চার ও ২টি ছক্কায় এ রান করেন তিনি। ৩৪ বলে ৫টি চার ও ২টি ছক্কায় ৪৫ রান করেন মোহাম্মদ নাঈম। ৩২ বলে ৩টি চারের সাহায্যে ৩০ রান করেন মুশফিক। গাজী গ্রুপের পক্ষে ১টি করে উইকেট পান আবু হায়দার রনি ও টিপু সুলতান। ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন মোহাম্মদ শহীদ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ