বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০
Online Edition

কিশোরী ফুটবলারদের কনকাকাফে খেলানোর উদ্যোগ

স্পোর্টস রিপোর্টার : ঘরের মাঠে সাফ জয়ের চার মাসের মাথায় হংকংয়ে জকি গার্লস ইন্টারন্যাশনাল ইয়ুথ কাপে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল দল। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) এখন এই কিশোরীদের নিয়ে যেতে চায়  যুক্তরাষ্ট্রে। উত্তর আমেরিকান ফুটবল কনফেডারেশন কনকাকাফের অনূর্ধ্ব-১৫ টুর্নামেন্টে মেয়েদের খেলানোর উদ্যোগ নিয়েছে দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাটি।আগামী ৬ থেকে ১৩ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরেডিয়ায় অনুষ্ঠিত হবে ৩২ দেশের এই টুর্নামেন্ট। যেখানে আমন্ত্রিত হিসেবে সুযোগ পাবে এশিয়ার একটি দেশ। এশিয়ান ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা এএফসি ঠিক করবে এশিয়া থেকে কোন দেশটি যাবে কনকাকাফের সেই টুর্নামেন্ট। বাংলাদেশ টুর্নামেন্টটিতে খেলার জন্য এন্ট্রি করবে। ‘জাপান-কোরিয়ার মতো অনেক বড়বড় দল খেলতে চাইবে। আমরা এন্ট্রি করবো’-সোমবার একথা বলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের মহিলা কমিটির চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ।চলতি বছর  নারী ফুটবলে বাংলাদেশের ব্যস্ত বছর। হংকংয়ের টুর্নামেন্ট গেলো। মে মাসে ব্যাংককে আছে এএফসি ফুটসাল টুর্নামেন্ট। রাশিয়া বিশ্বকাপের পর আগস্টে হবে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ। সেপ্টেম্বরে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপ। সেপ্টেম্বরে আছে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়শিপের আঞ্চলিক পর্ব। অক্টোবরে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৯ ও ডিসেম্বরে সিনিয়র সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। এই ব্যস্তসূচির মধ্যে আগস্টে মেয়েদের যুক্তরাষ্ট্রের কনকাকাফে পাঠানোও কঠিন বাফুফের জন্য।তবে আগস্টের সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশি সূচি পরিবর্তন হলে  বাংলাদেশের মেয়েদের যুক্তরাষ্ট্রে খেলার সম্ভাবনা তৈরি হবে। যদিও তার আগে নিশ্চিত হতে হবে এএফসি থেকে। ‘আসলে আমাদের প্রথম অগ্রাধিকার সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। দক্ষিণ এশিয়ার এ টুর্নামেন্টের সিডিউল পরিবর্তন করা যায় কি না তা নিয়ে আমি ইতিমধ্যেই কথা বলেন সাফের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল। কনকাকাফের বয়স ভিত্তিক এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয় দুই বছর অন্তর। ক্যারিবিয়ান ফুটবল অঞ্চল, মধ্য আমেরিকা অঞ্চল, উত্তর আমেরিকা অঞ্চলের দেশগুলো নিয়ে হয়ে থাকে এই টুর্নামেন্ট। এশিয়ান অঞ্চল থেকে খেলবে একটা দেশ। সেই কোটায় বাংলাদেশ আদৌ সুযোগ পাবে কি না সেটা পুরো নির্ভর করবে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) ওপর।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ