বৃহস্পতিবার ০১ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

সাউদি-বোল্টের দাপটের পর বেয়ারস্টোর প্রতিরোধ

 

স্পোর্টস ডেস্ক : অকল্যান্ডের পর ক্রাইস্টচার্চ টেস্টেও চললো ট্রেন্ট বোল্ট ও টিম সাউদির দাপট। ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইন আরেকবার ভেঙে দিলেন তারা। তবে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিন বিকেলে বিপদ কাটিয়ে দলকে রক্ষা করলেন ইংলিশ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো। দিন শেষে প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেটে ২৯০ রান করেছে ইংল্যান্ড। শুক্রবার টস জিতে ফিল্ডিং নিয়ে নিউজিল্যান্ড শুরুটা করেছিল দারুণ। তৃতীয় ওভারে ইংল্যান্ডের ওপেনার অ্যালিস্টার কুককে (২) বোল্ড করেন বোল্ট। প্রথম উইকেট হারানোর পর সাবধানী ইনিংস খেলতে থাকে সফরকারীরা। দলীয় ৩৮ রানে ভিন্স (১৮) সাউদির এলবিডাব্লিউ হলে ইংল্যান্ডের প্রথম সেশন শেষ হয় ২ উইকেটে ৭০ রানে। দ্বিতীয় সেশনে হঠাৎ করেই ইংলিশ ব্যাটিং লাইনআপ বিপর্যস্ত। সাউদি ও বোল্টের টানা তিন ওভারে ৩ উইকেট হারায় তারা। জো রুট ও মার্ক স্টোনম্যানকে সাজঘরে পাঠান সাউদি, আর ডেভিড মালান হন বোল্টের শিকার।

মাত্র ৯৪ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে আগের টেস্টের মত ব্যাটিংয়ের বিপর্যয়ের পড়ে  সফরকারীরা। কিন্তু বেন স্টোকসকে নিয়ে ৫৭ রানের জুটি গড়ে সেই ধাক্কা সামলে নেন বেয়ারস্টো। স্টোকস ২৫ রানে বোল্টের বলে বিজে ওয়াটলিংকে পেছনে উইকেট দেন। স্টুয়ার্ট ব্রড উইকেট হারান সাউদির কাছে। শেষ সেশনের এই বিপর্যয় মার্ক উডকে নিয়ে সামাল দেন বেয়ারস্টো। ৯৫ রান যোগ করেন তারা দুজনে। ৫৪ বলে ৭ চার ও ১ ছয়ে প্রথম হাফসেঞ্চুরি হাঁকানোর কিছুক্ষণ পর সাউদির পঞ্চম শিকার হন উড। তাকে ৫২ রানে বোল্ড করেন ডানহাতি পেসার।

৯৩ বলে ৭ চারে হাঁকানো ১৮তম হাফসেঞ্চুরিকে সেঞ্চুরি বানাতে আর ৩ রান দরকার বেয়ারস্টোর। জ্যাক লিচের সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন ৩১ রানের জুটিতে দিন শেষ করেছেন তিনি। ১৫৪ বলে ১১ চার ও ১ ছয়ে ৯৭ রানে অপরাজিত এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। সাউদি ২৩ ওভারে ৬ মেডেনসহ ৬০ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট। দিনের বাকি ৩ উইকেট বোল্টের।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ