শনিবার ১১ জুলাই ২০২০
Online Edition

লন্ডনে যাওয়ার অনুমতি পাননি নওয়াজ ও মরিয়ম

২৩ মার্চ, ডন : এক সপ্তাহের জন্য সশরীরে আদালতে হাজিরা দেয়া থেকে অব্যাহতি চেয়ে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজের করা আবেদন খারিজ করে দেয়া হয়েছে। পাকিস্তানী সংবাদমাধ্যম জানায়, গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের অ্যাকাউন্টেবিলিটি কোর্ট আবেদনটি খারিজ করে দিয়েছে।

২০১৭ সালের ২৮ জুলাই পানামা পেপারস কেলেঙ্কারি মামলায় অভিযুক্ত হয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে প্রধানমন্ত্রী পদে অযোগ্য ঘোষিত হওয়ার পর পদত্যাগ করেন নওয়াজ শরিফ। আর ওই বছরের সেপ্টেম্বরে নওয়াজ শরিফ ও তার পরিবারের সদস্যদের সমস্ত সম্পত্তি ও ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ করার সুপারিশ করা হয়। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে সুপ্রিম কোর্টের এক রায়ে পিএমএল-এন এর দলীয় প্রধান হিসেবেও নওয়াজকে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়।

পাকিস্তানের অ্যাকাউন্টেবিলিটি কোর্টে নওয়াজ ও মরিয়মের বিরুদ্ধে বিচার কার্য চলছে। লন্ডনে চিকিৎসারত স্ত্রী কুলসুমকে দেখতে যাওয়ার কথা বলে ২৬ মার্চ পর্যন্ত আদালতে হাজিরা দেয়া থেকে অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করেছিলেন নওয়াজ। একই কারণ দেখিয়ে তার মেয়ে মরিয়মও এক সপ্তাহের জন্য শুনানিতে উপস্থিত হওয়া থেকে অব্যাহতি চেয়েছিলেন। তবে বৃহস্পতিবার অ্যাকাউন্টেবিলিটি কোর্টের বিচারপতি মোহাম্মদ বশির সে আবেদন নাকচ করে দেন। বিচারিক কার্যক্রম চূড়ান্ত পর্যায়ে আছে উল্লেখ করে আবেদনগুলো খারিজ করা হয়।

আবেদন খারিজ হওয়ার পর একটি টুইট করেছেন মরিয়ম নওয়াজ। মা কুলসুম নওয়াজ তাদের জন্য অপেক্ষা করছেন উল্লেখ করে মরিয়ম লিখেছেন, ‘উনি অপেক্ষায় আছেন। ৪ মাস ধরে তাকে দেখি না। গত বারও হাজিরা থেকে অব্যাহতি চেয়ে আমাদের করা আবেদন খারিজ হয়ে গিয়েছিল।’

আরেকটি টুইটে মরিয়ম লিখেছেন, ‘আমার মা আমার জন্য আর বাবার জন্য পথ চেয়ে আছেন। টেলিফোনে উনি আমার কাছে জানতে চেয়েছেন আমরা আদালতের অনুমতি পেয়েছি কিনা। আমি উত্তরে না বললাম। তিনি শুনে বললেন, তাতে কিছু আসে যায় না, আল্লাহ আমাদের সঙ্গে আছেন।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ