সোমবার ০৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

মিরপুরে যাত্রীবাহী বাসে কলেজ ছাত্রী হেনস্থা গ্রেফতার ২

 

স্টাফ রিপোর্টার : মিরপুরের উদ্দেশে ফার্মগেট এলাকা থেকে একটি যাত্রীবাহী বাসে উঠেন ইডেন মহিলা কলেজের ছাত্রী। বাসে উঠে তিনি একটু থমকে যান। চালক, তার সহকারী (হেলপার) আর ২/৩ জন যাত্রী ছাড়া গোটা গাড়ি ফাঁকা।

 অস্বস্তি বোধ করে বাস থেকে নেমে যাওয়ার চেষ্টা করেন ওই ছাত্রী। এ সময় চালকের সহকারী বলে উঠেন, ‘আপা, ভয় পাইছে।’ এরপর বাসের দরজা রোধ করে দাঁড়ান এবং বাসের চালকও দরজা আটকে দিতে বলেন।

এ সময় চালক, তার সহকারী ও বাসের অন্য যাত্রীরা এ নিয়ে হাসাহাসি করতে থাকেন। এক পর্যায়ে খামারবাড়ি পৌঁছে গাড়িটি রুট পরিবর্তন করার চেষ্টা করে। ভয় পেয়ে মেয়েটি এক প্রকার চালকের সহকারীকে ধাক্কা দিয়ে নেমে পড়েন।

গত শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে মতিঝিল থেকে চিড়িয়াখানাগামী নিউ ভিশন পরিবহনের একটি বাসে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই কলেজছাত্রী তার হেনস্থার বিষয়টি ফেসবুকে উল্লেখ করেন। এরপর ঘটনার অনুসন্ধানে নামে ডিবি (পশ্চিম) বিভাগের একটি দল।

অবশেষে বুধবার গোপন তথ্যের ভিত্তিতে কলেজছাত্রী হেনস্থার ঘটনায় জড়িত সেই বাসচালক মো. দ্বীন ইসলাম (৩৭) ও তার সহকারী মো. বিল্লাল হাওলাদারকে (২৮) আটক করেছে ডিবি। ঢাকা মহানগর পুলিশ সূত্রে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তিনি বলেন, ‘ওই ছাত্রী পুরো ঘটনাটি স্ট্যাটাসের মাধ্যমে তার নিজের ফেসবুক ওয়ালে তুলে ধরেছিলেন। কিন্তু, তার ফেসবুকের গোপনীয়তা কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত থাকায় এবং স্ট্যাটাসের প্রতিক্রিয়ায় অসংখ্য মেসেজ পাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি তার ইনবক্স চেক থেকে বিরত থাকেন। ফলে আমরাও তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি।’

এসি সুমন কান্তি জানান, এক পর্যায়ে প্রযুক্তিগত সহায়তার মাধ্যমে ওই ছাত্রীর সঙ্গে তারা যোগাযোগ করেন। এরপর নিউ ভিশন পরিবহনের বাসের চালক ও হেলপারদের ধারাবাহিক জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রযুক্তিগত বিশ্লেষণের মাধ্যমে অভিযুক্ত দ্বীন ইসলাম ও বিল্লালকে আটক করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ