বৃহস্পতিবার ০৪ জুন ২০২০
Online Edition

খুলনার আলিফের লাশ শনাক্তে ডিএনএ পরীক্ষা করা হচ্ছে

খুলনা অফিস: নেপালের কাঠমান্ডুতে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় নিহত আলিকুজ্জামান আলিফের লাশ শনাক্তে ডিএনএ পরীক্ষার জন্য তার বাবা-মার রক্তের নমুনা নেয়া হয়েছে। সোমবার রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি অফিসে রক্ত দেন তারা। ইউএস বাংলার বিমাব দুর্ঘটনায় পুড়ে যাওয়ার কারণে আলিফের লাশ শনাক্ত করা যায়নি।

আলিফের ছোট ভাই ইয়াসিন আরাফাত জানান, বিমান দুর্ঘটনায় নিহত ২৬ জনের মধ্যে শনাক্ত হওয়া ২৩ জনের লাশ সোমবার দেশে এসেছে। আলিফসহ তিন জনের লাশ শনাক্ত না হওয়ায় লাশ তিনটি নেপালেই সংরক্ষিত রয়েছে। এ অবস্থায় আলিফের লাশ শনাক্তের জন্য সোমবার বাবা মোল্লা আসাদুজ্জামান ও মা মনিকা বেগম মালিবাগ সিআইডি অফিসে রক্ত দিয়েছেন। এখন নেপাল থেকে লাশ তিনটির আলামত দেশে আনা হবে। এরপর ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে আলিফের লাশ শনাক্ত করা হবে। এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে লাশ পেতে ৭-২১ দিন সময় প্রয়োজন হবে বলে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স ও সিআইডি দাবি করেছে। ইয়াসিন আরাফাত আরও জানান, ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে শনাক্ত হওয়ার পর আলিফের লাশ দেশে এনে রূপসার পৈত্রিক নিবাস আইচগাতি গ্রামের গণকবরে দাফন করা হবে। সেভাবেই প্রয়োজনীয় প্রস্তুতিমূলক পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, ১২ মার্চ ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি বিমান কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয়। এ ঘটনায় ৪৯ আরোহীর মৃত্যু হয়, যাদের মধ্যে চার পাইলট-ক্রুসহ ২৬ জন বাংলাদেশি। তাদের মধ্যে ২৩ জনকে শনাক্ত করে ১৯ মার্চ দেশে নিয়ে আনা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ