বৃহস্পতিবার ০৪ জুন ২০২০
Online Edition

এক বছরে নতুন কর্মসংস্থান হয়েছে ১৩ লাখ -বিবিএস

স্টাফ রিপোর্টার : দেশে গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে মোট ৩৭ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। এর মধ্যে নতুন কর্মসংস্থান হয়েছে ১৩ লাখ। আর শিল্পখাতে নতুন কর্মসংস্থান বেড়েছে মাত্র দুই লাখ। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) শ্রমশক্তি জরিপ প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।
গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পরিসংখ্যান ভবনে পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) আয়োজনে (২০১৬-২০১৭) বছরের শ্রমশক্তি জরিপ প্রকাশ করা হয়। ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে প্রতিবেদন তৈরি করা হলেও বছর শেষেই প্রতিবেদন প্রকাশ করে থাকে বিবিএস।
জরিপ প্রকাশ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন- অর্থপ্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, বিবিএস মহাপরিচালক আমীর হোসেন।
বিবিএস’র তথ্যানুযায়ী, শিল্পখাতে নতুন কর্মসংস্থান বাড়ছে ধীরে। প্রাতিষ্ঠানিক কর্মসংস্থানের বড় অংশ সেবাখাত নির্ভর। ২০১০ ও ২০১৩ সালে শিল্পখাতে ১ কোটি ২১ লাখ মানুষ নিয়োজিত ছিল। এ সংখ্যা ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ১ কোটি ২২ লাখ হয়। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে মাত্র দুই লাখ বেড়ে ১ কোটি ২৪ লাখ হয়েছে।
জরিপ প্রকাশ অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ১০ কোটি ৯১ লাখ কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর মধ্যে বেকারের সংখ্যা ২৬ লাখ ৮০ হাজার। এছাড়া ‘আনপেইড’ থেকে ‘পেইড ইমপ্লয়মেন্ট’ হয়েছে ১৪ লাখ এবং বৈদেশিক কর্মসংস্থান হয়েছে ১০ লাখ। কর্মসংস্থান নতুন বৃদ্ধির হার ২ দশমিক ২ ভাগ। তবে পুরুষের ক্ষেত্রে এটি শূন্য দশমিক ৭ ভাগ এবং নারীদের বৃদ্ধির হার ৪ দশমিক ৮ ভাগ।
অন্যদিকে সেবা খাতে ২০১৬-১৭ অর্থবছর ২ কোটি ৩৭ লাখ মানুষ নিয়োজিত ছিলো। সে হিসাবে একবছরের ব্যবধানে সেবা খাতে নতুন কর্মসংস্থান ১৭ লাখ বেড়েছে।
প্রতিবেদনে দেখা যায়, ২০১০ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত দেশে ২ কোটি ৬২ লাখ মানুষ কৃষিখাতে নিয়োজিত থাকলেও এর পর থেকে ধারাবাহিকভাবে কমতে শুরু করে। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে এই সংখ্যা ছিল ২ কোটি ৫৮ লাখ। অন্যদিকে গেল ২০১৬-১৭ অর্থবছরে এই সংখ্যা ২ কোটি ৪৭ লাখে নেমে এসেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ