বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০
Online Edition

সংসদ নির্বাচন নিয়ে ছিনিমিনি খেললে তা প্রতিরোধ করা হবে

স্টাফ রিপোর্টার: একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে সরকার ছিনিমিনি খেললে তা প্রতিরোধ করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে বিএনপি। গতকাল রোববার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই হুঁশিয়ারি দেন। তিনি বলেন, দেশের বহুদলীয় গণতন্ত্র ও স্বাধীনতা রক্ষা এবং জনগণের আশা-আকাক্সক্ষার প্রতীক দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া জাতীয় নির্বাচন হতে দেবে না জনগণ। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো ভোটারবিহীন একতরফা নির্বাচন আর এদেশে করতে দেয়া হবে না। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, নির্বাচন নিয়ে ছিনিমিনি খেললে কাঁটাতারের বেড়া নয়, চীনের প্রাচীরের ন্যায় প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে।  জনগণকে সাথে নিয়ে প্রতিরোধের ধাক্কায় গুড়িয়ে দেবে। দেশের জনগণ, দেশের তরুন সমাজ, দেশের প্রতিটি শ্রেণি- পেশার ভোটাররা আর একতরফা নির্বাচন হতে দিয়ে দেশে একব্যক্তির জমিদারি শাসন চালাতে দেবে না।
একাদশ নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে দলের অবস্থান পরিষ্কার করে রিজভী বলেন, বিএনপি সেই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে যেই নির্বাচনে দলের নেতৃত্ব দেবেন বেগম খালেদা জিয়া। সেই নির্বাচন হতে হবে অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক। শেখ হাসিনাকে পদত্যাগ করতে হবে ও নির্দলীয় সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে।
রিজভী বলেন, পিঠাভাগের মতো সংসদীয় আসনের সিংহভাগ আওয়ামী লীগ নিজদের কবজায় রেখে বাকী আসন অন্যদলকে বন্টন করার কথা শোনা যাচ্ছে। এটা নির্বাচনহীন একদলীয় শাসনের নমুনা। ওবায়দুল কাদেরের কথা যে আনুষ্ঠানিকতা কথা বলা হয়েছে সেটা কী এটার(একদলীয় নির্বাচন) আলামত কিনা – তা জনগণের কাছে বড় প্রশ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে। আসন ভাগাভাগির বিষয়টি অনেকটাই পরিষ্কার হয়ে গেছে এই কথার মধ্য দিয়ে।
আমরা বলতে চাই, যতই আসন ভাগাভাগি করেন না কেনো,   বানরের পিঠা ভাগাভাগির নির্বাচন এদেশের জনগণ হতে দেবে না। বিএনপি একতরফা ভাগাভাগির নির্বাচনকে কেবল প্রত্যাখ্যানই করবে না, জনগণকে সাথে নিয়ে প্রতিরোধের ধাক্কায় সেই নির্বাচনকে গুড়িয়ে দেয়া হবে।
রিজভী বলেন, আগামী নির্বাচনকে নিয়ে যে ষড়যন্ত্র হচ্ছে তা প্রতিহত করতে, লুটেরা সরকার কায়েমের বিরুদ্ধে জনগণ জেগে ওঠেছে। যেভাবে দেশের আর্থিক খাতকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে, শেয়ার বাজার লুট করা হয়েছে, শিক্ষা ব্যবস্থা যেভাবে ধ্বংস করা হয়েছে, সারাদেশে লুটপাটের যে আনন্দমেলা চলছে, সড়কের বেহাল দশায় প্রতিদিন যেভাবে মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হচ্ছে-তাতে উন্নয়নের খিন্ন বলয়ের নির্মোক ছিঁড়েখুঁড়ে কঙ্কাল বেরিয়ে পড়েছে, নির্যাতন নিপীড়নের মাধ্যমে, গুম, খুন, ক্রসফায়ারে নির্বিচারে মানুষ হত্যার মাধ্যমে দেশে যে আতঙ্কিত পরিবেশ তৈরি করা হয়েছে, যেভাবে সরকার দলীয় নেতা-কর্মীদের দ্বারা নারী-শিশু নির্যাতনসহ মানুষের ঘর-বাড়ি, ভিটা বেদখল চলছে এ থেকে পরিত্রাণ পেতে চলমান দুঃশাসনের বিরুদ্ধে জনগণ এখন ফুঁসে উঠেছে। জনতার প্রতিরোধে আওয়ামী নেতাদের সকল ষড়যন্ত্র ধুলিস্যাৎ হয়ে যাবে।
এসময় বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি কাজী আলাউদ্দিন সাতক্ষিরা নি¤œ আদালতে মিথ্যা মামলায় হাজিরা দিতে গেলে তার জামিন বাতিল করে জেলহাজতে প্রেরণের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং অবিলম্বে তার মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও নি:শর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।
 বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির দাবিতে যুবদলের পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে শনিবার ঢাকাসহ দেশের সকল মহানগর ও বিভাগীয় শহরে মিছিল করেছে জাতীয়তাবাদী যুবদল। মিছিল থেকে ঢাকা জেলা যুবদল নেতা ইয়াসিন ফেরদৌস মুরাদ, ঢাকা মহানগর উত্তরা পশ্চিম থানা যুবদল এর যুগ্ম আহবায়ক শিমুল আহমদ, মতিঝিল থানা যুবদল নেতা আল আমিন, চকবাজার থানা যুবদল নেতা আল আমিন এবং খিলগাঁও থানা যুবদল নেতা হোসেনসহ ১০জনকে গ্রেফতার করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। বিএনপি’র পক্ষ থেকে গ্রেফতারকৃত যুবদল নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে অবিলম্বে তাদের নি:শর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান রিজভী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ