মঙ্গলবার ২৬ মে ২০২০
Online Edition

কারচুপির অভিযোগে জাতীয় পার্টির পুনঃ নির্বাচন দাবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা: কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে দিয়ে শান্তিপূর্র্ণভাবে গতকাল মঙ্গলবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া-(নাসিরনগর) আসনের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
তবে ভোটারের উপস্থিতি ছিল খুব কম। শান্তিপূর্নভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও  নির্বাচনে কোন উত্তাপ, উৎসব-আমেজ পরিলক্ষিত হয়নি। গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রে ঘুরে এমন চিত্র চোখে পড়েছে।
তবে নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী রেজোয়ান আহমেদ অভিযোগ করে বলেন, নৌকার সমর্থকরা ৪০/ ৫০টি কেন্দ্র থেকে তার এজেন্টদের বের করে দিয়ে পুলিশের সহায়তায় ব্যালেট পেপারে সীল মেরেছে। তিনি এই নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানান।
জাতীয় পার্টির প্রার্থী রেজোয়ান আহমেদ অভিযোগ করে বলেন, নৌকার সমর্থকরা ৪০/৫০টি কেন্দ্র থেকে তার এজেন্টদের বের করে দিয়ে পুলিশের সহায়তায় ব্যালেট পেপারে সীল মেরেছে।
তিনি বলেন, সকালে নৌকার সমর্থকরা চাতলপাড় ইউনিয়নের ৭টি কেন্দ্র থেকে তার এজেন্ট বের করে দিয়ে পুলিশের সহায়তায়  ব্যালেটে নৌকা মার্কায় সীল মারে।
দুপুর তিনটার পর সরকারি দলের সমর্থকরা উপজেলার ভলাকুট, গোয়ালনগর ইউনিয়নের সবকটি কেন্দ্রসহ, উপজেলার নূরপুর, সূচিউরা ভোট কেন্দ্র দখল করে নৌকা মার্কায় সীল মারে।
তিনি এই নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি জানান।
এ ব্যাপারে নির্বাচনে সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ শফিকুর রহমান জাতীয় পার্টির প্রার্থীর অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, শান্তিপূর্বভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কেন্দ্র থেকে এজেন্ট বের করে দেওয়ার অভিযোগ সম্পূর্ন বানোয়াট। জাতীয় পার্টির প্রার্থী তাদের কাছে কোন অভিযোগ করেনি।
এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, তিনি বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে ভোটারের উপস্থিতি ছিল কম।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ