শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

যুব গেমসের রাজা হাসান রানী রূপা

স্পোর্টস রিপোর্টার : শেষ হয়েছে বাংলাদেশ যুব গেমসের প্রথম আসর। গতকাল গেমসের সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে থেকে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি যুব গেমসের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। সমাপনী দিনে বক্তব্য রাখেন সভাপতি ও  সেনাপ্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক ও যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার। আর সমাপনী বক্তব্য প্রদান করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এরপরই নিভে যায় যুব গেমসের প্রজ্বলিত মশাল। সারা দেশের সেরা ২৬৬০ ক্রীড়াবিদের অংশগ্রহণে চূড়ান্ত পর্বে ১৬৩টি স্বর্ণপদকের আসরটি শেষ হয়েছে ট্র্যাক এন্ড ফিল্ডের সবচেয়ে আকর্ষণীয় ইভেন্ট ১০০ মিটার স্প্রিন্ট দিয়ে। প্রধান এবং বিশেষ অতিথিদের উপস্থিতিতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের ফ্লাড লাইটের আলোয় যুব গেমসের শেষ ইভেন্টে স্বর্ণ জিতে আসরের রাজা হয়েছেন চট্টগ্রাম বিভাগের হাসান মিয়া। আসরের রানীর খেতাব পেয়েছেন রাজশাহী  বিভাগের রূপা খাতুন। গুরুত্বপূর্ণ এই দু’টি পদক নিষ্পত্তির মধ্য দিয়ে আসরে পদক তালিকায় সবার ওপরে থেকে আসর শেষ করেছে রাজশাহী বিভাগ। ৩৭টি স্বর্ণ, ৩৫টি রৌপ্য, ৪০টি ব্রোঞ্জসহ ১১২টি পদক পেয়ে আসরে সেরা হয়েছে রাজশাহী বিভাগ। সমান সংখ্যক স্বর্ণপদক পেয়েও (৩৭টি) রৌপ্য, ব্রোঞ্জে পিছিয়ে থাকায় ৯৪টি পদক নিয়ে  রানার্স আপ হয়ে আসরটি শেষ করেছে খুলনা বিভাগ। ৩৫টি স্বর্ণ, ২৬টি রৌপ্য, ৪২টি ব্রোঞ্জসহ ১০৩টি পদক নিয়ে চট্টগ্রাম তৃতীয় হয়েছে। মেয়েদের ১০০ মিটার স্প্রিন্টে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই হয়েছে রাজশাহীর ২ নারী অ্যাথলিট রূপা খাতু, সোনিয়া আক্তারের মধ্যে। এই ইভেন্টে ১২.৩০ সেকেন্ড সময় নিয়ে স্বর্ণপদক জিতেছেন রূপা খাতুন।  ১২.৪০ সেকেন্ড সময় নিয়ে রৌপ্যপদক জিতেছেন রাজশাহীর আরেক অ্যাথলেট সনিয়া আক্তার। ১২.৬০ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন ঢাকা বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার আফ্রিয়া অলিন। বাংলাদেশ যুব গেমসে স্প্রিন্টের ২টি গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্ট ১০০ ও ২০০ মিটার স্প্রিন্টে অংশ নিয়ে দু’টিতেই স্বর্ণপদক জিতেছেন নবম শ্রেণির ছাত্রী পাবনার মেয়ে রুপা খাতুন।  এদিকে ১১.০৬ সেকেন্ডে সময় নিয়ে ১০০ মিটার স্প্রিন্ট অতিক্রম করে আসরের রাজা হয়েছেন  চট্টগ্রাম বিভাগের হাসান মিয়া। ১০০ মিটারে স্প্রিন্টে তার সঙ্গে লড়াইটা ভালোই হয়েছে একই বিভাগের আব্দুল মোত্তালিবের। তার সময় লেগেছে ১১.৪০ সেকেন্ডে। এছাড়া ঢাকা বিভাগীয় জেলা ক্রীড়া সংস্থার নাদিম মোল্লা ১১.৬০ ব্রোঞ্জ পদক পেয়েছেন। বাংলাদেশ যুব গেমসের ১০০ মিটার স্প্রিন্টের নিষ্পত্তি হয়েছে  ইলেকট্রনিক টাইমিংয়ে। বাংলাদেশ যুব গেমসের সমাপনী দিনে আমন্ত্রিত অতিথিদের উপস্থিতি এবং গ্যালারিতে দর্শকের সামনে ১০০ মিটার স্প্রিন্টে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করায় দারুণ উৎফুল্ল কৃষক পরিবারের ছেলে হাসান মিয়া। ভবিষ্যতে বাংলাদেশের হয়ে দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে ( এসএ গেমস) স্বর্ণ জয়ের স্বপ্ন দেখছেন তিনি।  সর্বশেষ জুনিয়র অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে স্বর্ণপদক জিতে বাংলাদেশ যুব গেমসের ১০০ মিটার স্প্রিন্টে ছিলেন ফেভারিট। অসুস্থতা নিয়ে দৌড়েছেন বলে টাইমিং আশানুরূপ হয়নি বলে জানিয়েছেন আসরের রাজা হাসান মিয়া-‘অসুস্থতার কারণে টাইমিং কিছুটা বেশি লেগেছে। নয়তো এবারা টাইমিংয়ে আরও উন্নতি করার লক্ষ্য ছিল।’ 

মেয়েদের ১০০ মিটার স্প্রিন্টে স্বর্ণ জিতে উচ্ছ্বসিত দুটি রাজশাহী বিভাগের মেয়ে রুপা খাতুন। ২০০ মিটারের স্বর্ণপদকও জিতেছেন দশম শ্রেণির এই ছাত্রী। তবে ১০০ মিটার স্প্রিন্টের স্বর্ণই বেশি তৃপ্তি দিয়েছে তাকে। কারণ অ্যাথলেটিক্স শুরু করার পর ২০০ মিটারে ভালো করলেও ১০০ মিটারে হেরে যেতেন। যে কারণেই রুপার কণ্ঠে উচ্ছ্বাস, ‘খুবই ভালো লাগছে। এত আয়োজনের মাঝে সেরা হওয়া দারুণ ব্যাপার। তবে আমি জাতীয় পর্যায়েই শুধু নয়, বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে স্বর্ণ জিততে চাই।’ জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপেও স্বর্ণ জিতেছেন রুপা খাতুন। সময় নিয়েছিলেন ১২.৬০। এবার সেটাকে নিয়ে এসেছেন ১২.৩০ সেকেন্ডে। তাও আবার ইলেকট্রনিক টাইমিংয়ে। বাংলাদেশের সাবেক দ্রুততম মানব এবং বর্তমানে বিকেএসপির কোচ আবদুল্লাহেল কাফির প্রতি কৃতজ্ঞ রূপা-‘স্কুল পর্যায়ে শীতকালীন-গ্রীস্মকালীন প্রতিযোগিতায় অংশ নিতাম। ১০০ মিটারে এখন যে ভালো করছি তা কাফি স্যারের কারণেই। উনি আমার রানিংয়ে উন্নতি নিয়ে অনক কাজ করেছেন।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ