রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১
Online Edition

গোদাগাড়ীতে বড় ভাই খুন হলেন ছোট ভাইয়ের হাতে

গোদাগাড়ী (রাজশাহী) সংবাদদাতা : রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ছোট ভাইয়ের হাতে আব্দুল করিম (৪৮) নামের বড় ভাই খুন হয়েছে। ঘটনাটি ঘটে উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের ভূষনা গ্রামে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের মৃত বেলাত হোসেনের ছেলে আব্দুর রহিম ও আব্দুল করিমের বেশ কিছুদিন ধরে বসত ভিটার সীমানাকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলছিল। এমনকি বড় ভাই আব্দুল করিম নতুন বাড়ি নির্মাণ এর জন্য পুরোনো ঘর বাড়ি ভেঙ্গে বাড়ি নির্মাণের প্রস্তুতি নিলে ছোট ভাই আব্দুর রহিম বাধা প্রদান করে। এর জেরে বেশ কিছুদিন ধরে আব্দুল করিম খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছিলেন। ছোট ভাইয়ের অন্যায় অত্যাচার সামলাতে না পেরে সুবিচারের আসায় আব্দুল করিম মোহনপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত একটি আবেদন দাখিল করেন। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে বাড়ীর পার্শ্বে জমিতে ডালজাত মসুর তুলতে গেলে এই সুযোগে বড় ভাইকে হত্যার উদ্দেশ্যে নিয়ে ছোট ভাই কিছু লোকজনসহ এলোপাথারি লাঠিসোঁঠা নিয়ে মারধর শুরু করেন। ঘটনাস্থলে বড় ভাই আব্দুল করিমের মাথা ফেটে রক্তাক্ত হয়ে জমিতে পড়ে ছটপট করতে থাকে। পরে খবরটি জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় আব্দুল করিমকে গোদাগাড়ী ৩১ শষ্যা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে গোদাগাড়ী হাসপাতালের কর্তৃপক্ষ আব্দুল করিম এর আশংক্ষাজনক অবস্থা দেখে রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে রেফার্ড করেন। আব্দুল করিম সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল ১১ টার দিকে মারা যান।
রাজশাহীর আরডিএ
মার্কেটে আগুন
সোমবার রাত ১০টার দিকে রাজশাহী নগরীর প্রাণকেন্দ্র সাহেববাজার এলাকায় অবস্থিত আরডিএ মার্কেটে অগ্নিকা- ঘটে। আগুনে মার্কেটের দোতলার দুটি দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। দমকল বাহিনীর পাঁচটি ইউনিট প্রায় আধা ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তারা প্রথমে মার্কেটের ৭৯ নম্বর দোকানে ধোয়া দেখেন। এরপরই দমকল বাহিনীকে খবর দেওয়া হয়। এরই মধ্যে আগুন পাশের ৭৮ নম্বর দোকানে চলে যায়। দুটি দোকানই কাপড়ের। ৭৯ নম্বর দোকানটির নাম এফএম ফ্যাশান। অপরটি আফসারা ফ্যাশান। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের রাজশাহী সদর স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার ফরহাদ হোসেন জানান, তাদের পাঁচ ইউনিটের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে প্রথমে ৭৯ নম্বর দোকান আগুন লাগে। পরে তা পাশের দোকানে ছড়িয়ে পড়ে। ফরহাদ হোসেন বলেন, এফএম ফ্যাশান পুরোপুরি পুড়ে গেছে। এতে প্রায় সাড়ে পাঁচ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এদিকে মার্কেটে আগুন লাগলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে সাহেববাজারসহ আশপাশের এলাকা অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়। মার্কেটের অন্য ব্যবসায়ীরাও আতঙ্কিত হয়ে নিজ নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে রাস্তায় নেমে আসেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ