বৃহস্পতিবার ০৪ জুন ২০২০
Online Edition

কেশবপুরে মসজিদে যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ করে দেয়ায় ২৫ পরিবার অবরুদ্ধ

কেশবপুর (যশোর) সংবাদদাতা: কেশবপুর উপজেলার দোরমুটিয়া গ্রামে একটি প্রভাবশালীমহল মসজিদে যাতায়াতের রাস্তা বেড়া দিয়ে ঘিরে বন্ধ করে দিলে ওই এলাকার ২৫ পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। ফলে বন্ধ হয়ে গেছে সরকারের এডিপি প্রকল্পের ইটের সোলিং কাজ।  
এলাকাবাসি জানায়, উপজেলার দোরমুটিয়া গ্রামের সাবেক মেম্বার আব্দুর রাজ্জাক সরদার এলাকাবাসির স্বার্থে ২০১৪ সালে একই গ্রামের সোবাহান খার কাছ থেকে ৮ দশমিক ২২ শতাংশ জমি পাশ উলে¬খ করে ক্রয়পূর্বক রাস্তা নির্মাণ করেন। এরপর কেশবপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সরকারের কর্মসৃজন কর্মসূচীর শ্রমিক দিয়ে রাস্তাটি মাটি ভরাটের কাজ করানো হয়। সেই থেকে এলাকার সরদার পাড়ার ২৫/৩০ পরিবার বাজার-শওদা করাসহ মসজিদে যাতায়াতের জন্যে রাস্তাটি ব্যবহার করে আসছেন। চলতি বছর উপজেলা পরিষদ রাস্তাটি ইটের সলিং করানোর জন্যে তালিকাভূক্ত করে। আব্দুর রাজ্জাক সরদার অভিযোগ করে বলেন, শনিবার সকালে কেশবপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদের এডিপি প্রকল্পের আওতায় শ্রমিকরা রাস্তাটি ইটের সলিং এর কাজ শুরু করে। এ সময় একই গ্রামের পেশকার খার ছেলে ইসমাইল খা ও ইয়াকুব আলী খার নেতৃত্বে ৭/৮ জন যুবক  ওই রাস্তা বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে জবর দখল করে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ রোপণ করে দেয়। তিনি বাঁধা দিতে গেলে তাকে হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়া হয়। ফলে ওই এলাকার ২৫ পরিবারের মসজিদে যাতায়াতের একমাত্র রাস্তাটি বন্ধ হয়ে যায়।
এ ব্যাপারে ইয়াকুব আলী খা বলেন, ওই জমি আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। তাই বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ