মঙ্গলবার ২৬ মে ২০২০
Online Edition

রওনক হত্যায় গ্রেফতার ৫ জন রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার : পুরান ঢাকার শাঁখারীবাজারে দোল উৎসবের মধ্যে কলেজছাত্র রওনক হোসেন রনোকে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জানে আলম মুন্সী বলেন, সোমবার রাতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই পাঁচজনকে তারা গ্রেফতার করেন। তবে তাদের নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে প্রকাশ করেনি পুলিশ। 
গত ১ মার্চ ঢাকার শাঁখারী বাজারে দোল উৎসবের ভিড়ের মধ্যে কলেজছাত্র রওনককে (১৮) ছুরি মারে একদল যুবক। আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়ার পর সেখানে তার মৃত্যু হয়। আজিমপুর নিউ পল্টন লাইন স্কুল এন্ড কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র রওনক কামরাঙ্গীরচরে রনি মার্কেট এলাকার শহিদ মিয়ার ছেলে। বন্ধুদের সঙ্গে দোল উৎসব দেখতে পুরান ঢাকায় গিয়ে তিনি আক্রান্ত হন। এ ঘটনায় অজ্ঞাতপরিচয় ২৫ থেকে ৩০ জনকে আসামী করে কোতোয়ালি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। রওনকের বন্ধু দুই কিশোর-কিশোরী সোমবার ঢাকার হাকিম আদালতে ঘটনার বিবরণ দিয়ে জবানবন্দী দেন।
পুলিশের ধারণা, প্রেম নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে ওই কলেজছাত্রকে খুন করা হয়েছে। ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ জানতে পেয়েছে, চার থেকে পাঁচজন তরুণ ভিড়ের মধ্যে খুব অল্প সময়ে ওই হত্যাকা- ঘটায়।
এদিকে, খুনের ঘটনায় গ্রেফতার পাঁচ তরুণ-তরুণীকে তিনদিন করে রিমা- দিয়েছেন আদালত। গতকাল দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক দেবব্রত বিশ্বাস এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এর আগে আদালতে হাজির করে তাদের বিরুদ্ধে ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও কোতয়ালি থানার পরিদর্শক জানে আলম।  শুনানি শেষে আদালত তাদের বিরুদ্ধে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডপ্রাপ্তরা হলেন- রিয়াজ আলম ওরফে ফারহান, ফাহিম আহম্মেদ ওরফে আব্রো, ইয়াসিন আলী, আল আমিন ওরফে ফারাবী খাঁন ও লিজা আক্তার ওরফে মাইসা আলম।
পুলিশ জানায়, ত্রিভূজ প্রেমের বলি হয়েছেন রওনক। সাবেক প্রেমিকা মাইসাকে ব্যবহার করে শাঁখারী বাজারে নিয়ে যায় রওনকের বর্তমান প্রেমিকা তুহুর । একই সময় রওনক ও তার খুনির সঙ্গে প্রেম করছেন তুহু। আর সেখান থেকেই এ দ্বন্দ্বের সৃষ্টি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ