শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত খালেদার ভাগ্য নির্ধারণ করবে আদালত -তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

লালমনিরহাট সংবাদদাতা: সরকার নয়, দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ভাগ্য নির্ধারন করবে আদালত। নির্বাচনকে সামনে নিয়ে সহায়ক সরকারের প্রস্তাব বিএনপির নির্বাচন বানচালের ওছিলা মাত্র । গত বুধবার বিকেলে লালমনিরহাট জেলা জাসদ আয়োজিত হাতীবান্ধা ডাকবাংলো মাঠে এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, আমাদের সরকার সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনে অংশ নেবে। নির্বাচন না হলে দেশে অরাজকতা তৈরি হবে। গনতন্ত্র ব্যাহত হবে। কোন নেতাকর্মী যদি কারাগারে আটক থাকে দূর্নীতির দায়ে তার জন্য নির্বাচন বন্ধ হতে পারেনা। তিনি বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উদ্দেশ্যে বলেন, খালেদা জিয়া এতিমের টাকা চুরি করেছেন। জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসবাদের আশ্রয়দাতা ও আগুনসন্ত্রাসী। তিনি জঙ্গীদের ও রাজাকারদের আশ্রয় প্রশয়দাতা।
বিএনপি দল রাজনীতির বিষ বৃক্ষ মন্বব্য করে ইনু  বলেন, জাসদ একটি সংগ্রামী রাজনৈতিক দল, নীতির দল, মুক্তিযোদ্ধার দল। নীতির কারনে জাসদ আওয়ামীলীগের সাথে হাত মিলিয়েছে। তিনি বলেন, তিস্তার পানি চুক্তি হোক বা না হোক তিস্তার পাগলামী বন্ধ করতে হবে। তাই তিস্তাার দুই পাড় শাসন করতে হবে।
জেলা জাসদের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও হাতীবান্ধা উপজেলা জাসদের সভাপতি ছাদেকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় বক্তব্য রাখেন- জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা ইমামুল ইসলাম,  নীলফামারী জেলা জাসদ সভাপতি আজিজুল ইসলাম, দিনাজপুর জেলা জাসদের সহঃ সাধারন সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, হাতীবান্ধা জাসদ সাধারন সম্পাদক বজলার রহমান, গোতামারী ইউনিয়ন জাসদ সভাপতি সজীত কুমার ও সহঃ সভাপতি কালী শংকর রায় প্রমুখ।
জনসভায় রংপুর বিভাগের ৮ জেলার জাসদের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহন করেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ