শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

৩টি আঞ্চলিক সড়কের বেহাল দশা যাত্রী সাধারণের চরম দুর্ভোগ

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) সংবাদদাতা: ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দক্ষিণ অংশে দাউদকান্দি উপজেলার প্রায় ১৫ কিলোমিটার পথ। এ পথ হয়ে প্রতিদিন চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর-দক্ষিণ ও কচুয়া উপজেলার লাখ-লাখ মানুষ যাতায়ত করে থাকে বিভিন্ন যানবাহনে। এছাড়া দাউদকান্দিবাসী জেলা-উপজেলা ও রাজধানীতেও যাতায়ত করেন এসব সড়ক দিয়ে। তবে জরাজীর্ণ ভাঙা গর্ত ও ধূলাবালির কারণে যাতায়তের চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছে সর্বস্তরের মানুষ। দাউদকান্দি সদর হয়ে শ্রী-রায়ের চর পেরিয়ে মতলব উত্তর, গৌরীপুর কানাচোয়া হয়ে মতলব দক্ষিণ ও আমিরাবাদ সাচার হয়ে কচুঁয়া উপজেলা সড়ক। প্রতিটি সড়কের এমন বেহাল দশা যা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব নয় সরাসরি প্রত্যক্ষ না করে, এমনটি মন্তব্য ভুক্তভোগীদের। ভাঙা ও ছোট-বড় গর্তের কারণে সড়কের পিচ ও মেকাডম ওঠে মাটির স্তরে পৌছার কারণে ধূলাবালিতে একাকার প্রায় সকল পথ-প্রান্তর। এসব জনবহুল সমস্যায় পরে প্রতিদিনই ঘটছে নানাহ দুর্ঘটনা, প্রাণ হারাচ্ছে বিভিন্ন বয়সের মানুষ। চিকিৎসা কেন্দ্রে যাওয়ার পূর্বেই অনেক রোগী মৃত্যুর মুখে পড়তে হচ্ছে। তাছাড়া শিক্ষাঙ্গণ গামী শিক্ষার্থীরা ধূলাবালির কারণে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। কয়েক বছর ধরে এসব জন গুরুত্বপূর্ণ সড়কের বেহাল দশায় নিরুপায় চার উপজেলার মানুষ। কুমিল্লার সড়ক ও জনপদ বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে সড়ক মেরামত বিষয়ে বিভিন্ন সময়ে কথা হলে তারা জানান, মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদন পাওয়া গেলে এবং বরাদ্দ এলে মেরামতের কাজ শুরু হবে। তবে অসমর্থিত সূত্রে জানা গেছে, ঠিকাদারদের কাছে এক শ্রেণির প্রভাবশালী লোক কাজের আগেই শতাধিক মটর সাইকেল চাওয়ায় এসব সড়কের কাজ নিতে কেউ রাজি হচ্ছে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ