শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

আমতলীতে মামলা করে বিপাকে পড়েছে বাদী ও তার পরিবার

আমতলী (বরগুনা) সংবাদদাতা: বরগুনার আমতলীতে মামলা করে বিপাকে পড়েছে বাদী ও তার পরিবার। আসামীদের ভয় ও হুমকির মধ্যে দিয়ে ভীত সন্ত্রস্থ ভাবে  জীবন যাপন করছেন  উপজেলার আরপাঙ্গাশিয়া ইউপির  আবুল কালাম ও তার পরিবার।
গত ১০ জুলাই আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট কোর্টে  আবুল কালামের দায়ের কৃত মামলা সূত্রে জানা যায়,  উপজেলার আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের ভ’মিহীন অসহায় আবুল কালাম ও তার স্ত্রী আরপাঙ্গাশিয়া ইউপির তারিকাটা মৌজার  ৭৯৫ খতিয়ানের ১০৮২/১১২০ নং দাগ থেকে এক একর ভূমি বন্দোবস্ত পায়।  বন্দোবস্ত পাওয়ার পর দীর্ঘদিন যাবৎ উক্ত ভ’মি আবুল কালাম ভোগ দখল করতেছে। ঘটনার তারিখ গত ৯ জুলাই ২০১৭ ইং তারিখ  মামলার আসামী মো. জাকির হাং (৪৩) মিজানুর হাং (৩৮)  লাঠি সোটা নিয়ে উক্ত জমি দখল করতে যায়। এ সময় আবুল কালাম বাধা দিতে গেলে তাকে মারধোর করে আইল সীমানা উপড়াইয়া ফেলে।  স্বামীকে মারধোরের ঘটনা শুনে আবুল কালামের স্ত্রী সাথী বেগম  স্বামীকে রক্ষা করতে আসলে সাথী বেগমের সাথে থাকা স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নিয়ে যায় মামলার আসামীরা। এ ঘটনায় ১০ জুলাই ২০১৭ ইং তারিখ আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আবুল কালাম বাদী হয়ে  মো. জাকির হাং (৪৩) মিজানুর হাং (৩৮)   ও জুবায়েত হাং কে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।
 আদালতের  বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে আড়পাঙ্গাশিয়া ইউপি চেয়ারম্যানকে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দেয়ার আদেশ দেন।  আরপাঙ্গাশিয়া ইউপি চেয়ারম্যান একে এম নুরুল হক  ২৬/৮/২০১৭ ইং তারিখ তদন্ত করে ঘটনার আসামী জাকির  হাং ও মিজানুর হাং বিরুদ্ধে   সত্যতা পেয়ে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন ।  আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিজ্ঞবিচারক তদন্ত প্রতিবেদন পেয়ে গত  ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখ আসামীদের  আগামী  ২২  এপ্রিল আদালতে হাজির হওয়ার সমন জারী করেছেন।
এ ঘটনার পর মামলার আসামীরা  আবুল কালাম তার স্ত্রী সাথী বেগম ও আবুল কালামের খালাত ভাই ভ’মি অফিসের চেইনম্যান  মো. রাকিবুল ইসলাম ইউছুফ কে মামলা প্রত্যাহারের জন্য বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি ও  হুমকি  দিতেছে । বর্তমানে আবুল কালাম ও তার পরিবার  চেইনম্যান ইউছুফ আসামীদের ভয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় জীবন যাপন করছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ