মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১
Online Edition

কেশবপুর ও কার্পাসডাঙ্গায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ॥ লাখ লাখ টাকার ক্ষতি

কেশবপুর (যশোর) : শহরের বাবুল বেডিং দোকান ঘরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের সৃষ্টি হয়

কেশবপুর (যশোর) সংবাদদাতা: যশোরের কেশবপুর শহরের তৃষ্ণা প্লাজার ২য় তলায় অবস্থিত আনসার ভিডিপি ব্যাংক ও পাশ্ববর্তী বাবুল বেডিং নামক তুলার গুদাম ঘর আগুনে ভষ্মিভূত হয়েছে। সোমবার সকালে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসি ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, যশোর-সাতক্ষীরা সড়কের পুরাতন গরু হাটা এলাকায় বাবুল বেডিং এর ভাড়াটিয়া তুলা ব্যবসায়ি মহসিন আলী তার গুদামে রি¬টিং মেশিনে তুলা প্রসেসিংয়ের কাজ করছিলেন। এ সময় ওই মেশিন থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়ে মূহুর্তে আগুন গোটা গুদামে ছড়িয়ে পড়ে। এই আগুন থেকেই পাশের তৃষ্ণা প্লাজা নামক ৫ তলা ভবনের ২য় তলায় আনসার ভিডিপি ব্যাংকেও আগুন লেগে যায়। খবর পেয়ে মনিরামপুর ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। অগ্নিকান্ডের সময় যশোর-সাতক্ষীরা সড়ক যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজানূর রহমান, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, সহকারি কমিশনার ভূমি কবির হোসেন, ওসি তদন্ত শাহজাহান আহমেদ, উপজেলা আওয়াশীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর শেখ ইবাদত সিদ্দিক বিপুল, শেখ আতিয়ার রহমান প্রমুখরা ছুটে আসেন। এ ব্যাপারে মনিরামপুর ফায়ার সার্ভিসের লিডার আজমল হোসেন জানান, অগ্নিকান্ডে আনসার ভিডিপি ব্যাংকের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আনুমানিক এক লাখ টাকার আসবাবপত্র ও তুলার দোকানের ছয় লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।
চুয়াডাঙ্গার কার্পাসডাঙ্গা
চুয়াডাঙ্গার কার্পাসডাঙ্গা আবাসনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে আবাসনের ১০টি বাড়ি পুড়ে গেছে। পরে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় ২ ঘন্টা প্রচেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। সোমবার দুপুরে দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা আবাসনে ওই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানান, দুপুরে আবাসনে হঠাৎ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। আগুন চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে ১০ টি বাড়ি ও এর ভিতরে থাকা নগত সাড়ে ৩ লাখ টাকা এবং গয়নাসহ আসবাবপত্র পুড়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট এসে প্রায় ২ ঘন্টা প্রচেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এতে ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি তাদের।
দর্শনা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন মাস্টার আনোয়ার হোসেন জানান, অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। বৈদ্যুতিক সট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। অগ্নিকান্ডে ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ